সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, ২০১২ সালের ১৩ এপ্রিল সকালে কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার পান্টিগ্রামে আবদুল্লাহ আল মঞ্জু নামে এক কিশোরকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। পূর্বশত্রুতার জেরে ওই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। একই দিন নিহতের বাবা বাদী হয়ে কুমারখালী থানায় রুবেলসহ ৩৭ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেন। মামলার তদন্ত শেষে ২০১৫ সালের ৩০ এপ্রিল আসামিদের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন তদন্ত কর্মকর্তা।

মামলার বিচারিক কার্যক্রম শেষে চলতি বছরের ১৯ জানুয়ারি কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত-১-এর বিচারক ছয় আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড এবং ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। রায় ঘোষণার সময় দণ্ডপ্রাপ্ত পাঁচজন আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। কিন্তু রায় ঘোষণার আগমুহূর্তে রুবেল আদালত থেকে পালিয়ে যান।