রুদ্ধদ্বার বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক (ফরিদপুর বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত) শামা ওবায়েদ। এতে ফরিদপুর, মাদারীপুর, শরীয়তপুর, গোপালগঞ্জ ও রাজবাড়ী জেলার বিভিন্ন সংসদীয় আসন থেকে নির্বাচিত সাবেক সংসদ সদস্য ও সংসদ সদস্য প্রার্থীরা উপস্থিত ছিলেন। তাঁদের মধ্যে আছেন শাহ মো. আবু জাফর, খন্দকার নাসির, ইকবাল হোসেন, শফিকুর রহামান, মো. নাসিরউদ্দিন, হারুণ অর রশিদ, আনিসুর রহমান প্রমুখ।

সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় বিএনপির সহসাংগঠনিক সম্পাদক (ফরিদপুর বিভাগ) মো. সেলিমুজ্জামান, ফরিদপুর জেলা বিএনপির আহ্বায়ক সৈয়দ মোদাররেছ আলী, সদস্যসচিব এক কে কিবরিয়া।

সভা শেষে জেলা বিএনপির আহ্বায়ক সৈয়দ মোদাররেছ আলী প্রথম আলোকে বলেন, সভায় গণসমাবেশ সফল করার জন্য কেন্দ্র থেকে পাঠানো নীতিমালা পর্যালোচনা করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এ ছাড়া গণসমাবেশের স্থান হিসেবে ফরিদপুর সরকারি রাজেন্দ্র কলেজের মাঠ চূড়ান্ত করা হয়। যত বাধাবিঘ্ন আসুক, ওই মাঠেই সমাবেশ আয়োজন করা হবে। পাশাপাশি গণসমাবেশের আগের দিন ১১ নভেম্বর জেলা আওয়ামী লীগ যে পাল্টা কর্মসূচি গ্রহণ করেছে সে কর্মসূচির কারণে শহরে যাতে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি না ঘটে, সে বিষয়ে ভূমিকা নেওয়ার জন্য জেলা প্রশাসন ও জেলা পুলিশের প্রতি আহ্বান জানানো হয়।