আজ সোমবার বেলা ১১টায় উপজেলার শহীদ মিনার চত্বর থেকে এ শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রায় শতাধিক সাঁওতালি নারী-পুরুষ তাঁদের ঐতিহ্যবাহী পোশাক ও তির-ধনুক হাতে অংশ নেন। তাঁদের ঐতিহ্যবাহী বাদ্যযন্ত্র তুনদা, কাড়া ও মাদলের তালে তালে নাচেন তাঁরা। শোভাযাত্রাটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে পুনরায় শহীদ মিনার চত্বরে এসে শেষ হয়। পরে সেখানে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা আদিবাসী উন্নয়ন সমিতির সভাপতি চুন্নু টুডু। এ সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক সাঞ্জু হাসদা, বাংলাদেশ সারি সারণা গাঁওতা সংগঠনের ফুলবাড়ী উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক সাহেব মুর্মু, আদিবাসী যুব ফোরামের সভাপতি শ্রীমান সরেন, সাধারণ সম্পাদক জীবন মুর্মু, আদিবাসী ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি রাজেন মার্ডি প্রমুখ।

এ সময় বক্তারা বলেন, সারা বিশ্বে বসবাসরত ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠীর মানুষেরা তাঁদের নিজ নিজ অবস্থান থেকে কাজ করে যাচ্ছেন। তারই স্বীকৃতিস্বরূপ দ্রৌপদী মুর্মু ভারতের ১৫তম রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হয়েছেন। ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠীর সবার জন্য এটা গর্বের, একই সঙ্গে আনন্দের। এর মধ্য দিয়ে সমাজে পিছিয়ে পড়া ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠীর মানুষেরা তাদের অধিকার ও মর্যাদা রক্ষার ক্ষেত্রে এগিয়ে যাবে। সমাজের প্রতিটি ক্ষেত্রে অংশগ্রহণমূলক অবদান রাখতে পারবে।

১৯৫৮ সালের ২০ জুন ভারতের ওডিশা রাজ্যের ময়ূরভঞ্জের উপেরবেদা গ্রামে এক সাঁওতালি পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন দ্রৌপদী মুর্মু। দেশটির সর্বোচ্চ সাংবিধানিক পদে অধিষ্ঠিত প্রথম আদিবাসী নারী হলেন তিনি। তিনি দেশটির দ্বিতীয় নারী রাষ্ট্রপতি। এ ছাড়া স্বাধীন ভারতে জন্ম নেওয়া প্রথম রাষ্ট্রপতি হলেন দ্রৌপদী। ভারতের ইতিহাসে কনিষ্ঠতম রাষ্ট্রপতিও হলেন তিনি।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন