ওই চিঠিতে বলা হয়েছে, আমিনা বেগম মাগুরার জেলা পশু হাসপাতাল পাড়ার কেয়াকুঞ্জ এলাকার বাসিন্দা। চাকরিতে যোগদানের পর বিভিন্ন সময় দুর্নীতির মাধ্যমে তিনি ও তাঁর স্বামী রুবাইয়াত আনোয়ার এবং তাঁর ওপর নির্ভরশীল ব্যক্তিরা নামে ও বেনামে স্থাবর অথবা অস্থাবর অঢেল সম্পত্তির মালিক হয়েছেন। এ বিষয়ে ২০০৪ সালের ৫ নম্বর আইনের ২৬–এর উপধারার (১) ক্ষমতাবলে তাঁদের সবার স্থাবর, অস্থাবর সম্পত্তি ও সব ধরনের আয়ের উৎসসহ সব হিসাব দাখিলের নির্দেশ দেয় দুদক। আগামী ২১ কার্যদিবসের মধ্যে হিসাব দাখিলে ব্যর্থ হলে তাঁর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ ব্যাপারে জানতে আমিনা বেগমের মুঠোফোনে একাধিক যোগাযোগ করা হলেও তিনি সাড়া দেননি।