পুলিশ জানায়, স্থানীয় লোকজনের কাছ থেকে খবর পেয়ে আজ দুপুরে পুলিশ চর মানাইর ইউনিয়নের আড়িয়াল খাঁ নদের তীরে শর্ষেখেত থেকে তাঁর লাশটি উদ্ধার করে।

নিহত ব্যক্তির স্বজনদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, গতকাল মঙ্গলবার ইজিবাইক নিয়ে বাড়ি থেকে বের হন শাহজাহান ব্যাপারী। এরপর রাতে তিনি বাড়িতে ফেরেননি। তাঁর ব্যবহৃত মুঠোফোন নম্বরে একাধিকবার কল করা হলেও সেটি বন্ধ পাওয়া যাচ্ছিল। এরপর বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি করেও স্বজনেরা শাহজাহানের কোনো হদিস পাননি। আজ ভোরে শাহজাহানের মুঠোফোন নম্বর থেকে একটি ফোন আসে। ফোনের অন্য প্রান্ত থেকে বলা হয়, ফজরের নামাজ পড়তে যাওয়ার সময় তিনি মুঠোফোনটি রাস্তায় কুড়িয়ে পেয়েছেন। দুপুরে সদরপুরে লাশ পাওয়ার খবরে স্বজনেরা থানায় গিয়ে শাহজাহানের লাশটি শনাক্ত করেন।

সদরপুর থানার উপপরিদর্শক কৃষ্ণ কুমার প্রথম আলোকে বলেন, স্থানীয় ব্যক্তিদের মাধ্যমে খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে লাশটি উদ্ধার করে পুলিশ। শাহজাহানের খোয়া যাওয়া ইজিবাইকটি গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর থেকে পরিত্যক্ত অবস্থায় পাওয়া গেছে। তবে ইজিবাইকের ব্যাটারিগুলো পাওয়া যায়নি।

সদরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সুব্রত গোলদার বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ফরিদপুরের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় একটি হত্যা মামলার প্রস্তুতি চলছে।