চুয়াডাঙ্গা জজকোর্টের আইনজীবী সাজ্জাদ হোসেন বলেন, একটি ডাকাতি মামলায় গ্রেপ্তার আজিজুল ২০২০ সালের ২৮ অক্টোবর থেকে চুয়াডাঙ্গা জেলা কারাগারে বন্দী ছিলেন। আজ আদালতে তাঁর সাক্ষ্য গ্রহণের দিন ছিল। এ জন্য সকাল ১০টার দিকে পুলিশ পাহারায় প্রিজন ভ্যানে অন্য আসামিদের সঙ্গে আজিজুলকে জেলা কারাগার থেকে আদালত চত্বরে আনা হয়। প্রিজন ভ্যান থেকে নামানোর পরপরই পুলিশবেষ্টনীর মধ্য থেকে তিনি হাতকড়া খুলে পালিয়ে যান।

থানা-পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ২০১৬ সালের ২৯ অক্টোবর রাতে দামুড়হুদা উপজেলার ঘুঘুডাঙ্গা গ্রামের তক্কেল আলীর বাড়িতে ডাকাতি হয়। ওই ঘটনায় গৃহকর্তা বাদী হয়ে অজ্ঞাতপরিচয় ১০ থেকে ১২ জনের বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা করেন। উপপরিদর্শক (এসআই) শিকদার মনিরুল ইসলাম তদন্ত শেষে ২০১৭ সালের ৩১ অক্টোবর আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। আজিজুল মামলার অভিযোগপত্রভুক্ত ৬ নম্বর আসামি।