বন্য প্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত শনিবার বেলা ১১টার দিকে তাদের কাছে খবর আসে সিলেটের বালাগঞ্জে খাঁচায় একটি মেছো বাঘ ধরা পড়েছে। স্থানীয় লোকজনের মাধ্যমে প্রাণীটি কোথায়, কীভাবে আছে সেটার খোঁজখবর নেওয়া হয়। কিন্তু তাৎক্ষণিকভাবে উদ্ধার অভিযানে যাওয়া সম্ভব হচ্ছিল না। মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসন এবং বন্য প্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগের উদ্যোগে মৌলভীবাজারে বৃক্ষরোপণ অভিযান ও বৃক্ষমেলার অনুষ্ঠান নিয়ে তাদের ব্যস্ততা ছিল।

বন্য প্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগ সিলেটের বিভাগীয় কর্মকর্তা মো. রেজাউল করিম চৌধুরী বৃক্ষমেলা নিয়ে ব্যস্ত থাকায় প্রাণীটিকে উদ্ধার করতে না পারার কথা জানান।

গতকাল বিকেলে সংস্থাটির মৌলভীবাজার সদর রেঞ্জ কর্মকর্তা গোলাম ছারওয়ারের নেতৃত্বে একটি দল মেছো বাঘটি উদ্ধারে বালাগঞ্জ যান। তিনি বলেন, বালাগঞ্জের রশিদপুর গ্রামের একটি স্কুলের কাছে কে বা কারা টোপ দিয়ে ফাঁদ পেতে রেখেছিল। ফাঁদটি কে রেখেছিল, কেউ স্বীকার করেনি। চারদিকে পানি থাকায় মেছো বাঘটি লোকালয়ে চলে আসে। টোপ দেখে খাঁচায় ঢোকে। চিকিৎসক ক্ষত স্থানে ড্রেসিং করে দিয়েছেন। ক্ষত স্থান শুকাতে সপ্তাহখানেক লাগতে পারে। মেছো বাঘটি প্রাপ্তবয়স্ক ও পুরুষ। তাকে এখন কোয়েল পাখি খাওয়ানো হচ্ছে।

বন্য প্রাণী গবেষকদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, সারা বিশ্বে মেছো বাঘ একটি সংকটাপন্ন প্রাণী। আন্তর্জাতিক প্রকৃতি ও প্রাকৃতিক সম্পদ সংরক্ষণ সংঘ (আইইউসিএন) মেছো বাঘকে সংকটাপন্ন প্রাণী হিসেবে লাল তালিকাভুক্ত করেছে। প্রাণীটি বাংলাদেশেও বিপন্ন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন