সম্মেলনে নতুন কমিটি গঠনে চারটি পদে শহিদুল ইসলাম ও রফিকুল ইসলাম এবং শাহ আলম ও শফিকুল ইসলামের পৃথক দুটি প্যানেল প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে। সম্মেলন শুরুর পরপরই উপজেলার ৯টি ইউনিয়নের ৬৩৯ কাউন্সিলর ভোট দেন। পরে ভোট গণনা শেষে বিকেল চারটার দিকে সম্মেলনের প্রধান অতিথি নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করেন।

সম্মেলনে প্রধান অতিথি ছিলেন বগুড়া জেলা বিএনপির আহ্বায়ক ও বগুড়া পৌরসভার মেয়র রেজাউল করিম। এতে সভাপতিত্ব করেন শেরপুর উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক শফিকুল ইসলাম। সম্মেলনে বক্তব্য দেন বগুড়া জেলা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক এ কে এম সাইফুল ইসলাম, বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য আলী আজগর তালুকদার, বগুড়া জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক ফজলুল বারী তালুকদার প্রমুখ।

নবনির্বাচিত সভাপতি শহিদুল ইসলাম বলেন, উপজেলা কমিটির সম্মেলন হয়েছে সর্বশেষ ২০০৯ সালে। এর পর থেকে স্থানীয় প্রশাসন ও সরকারদলীয় ক্ষমতাসীন দলের বিরোধিতার কারণে তাঁরা আর সম্মেলন করতে পারেননি। তবে শেরপুরসহ বগুড়ায় গত দুই বছরে দলীয় কর্মকাণ্ড চাঙ্গা হয়েছে। এ সময়ের মধ্যে তাঁরা তৃণমূল পর্যায়ে কমিটি গঠন করেছেন। এরপর তাঁরা উপজেলা কমিটির সম্মেলন করলেন।

জানতে চাইলে শেরপুর উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক আবদুল হাই সিদ্দিকী বলেন, উপজেলায় তৃণমূল পর্যায়ে কমিটি গঠনের মাধ্যমে শেরপুরের বিএনপি অনেক শক্তিশালী হয়েছে। আগামীতে নবনির্বাচিত কমিটির নেতৃত্বে বিএনপি আরও গতিশীল হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন