উদ্ধার অটোরিকশাচালকের নাম ফয়েজি আলম ওরফে শাহিন (২৯)। তিনি টেকনাফ পৌরসভার পুরান পল্লানপাড়ার মোহাম্মদ আলমের ছেলে। তাঁকে অপহরণের অভিযোগে আটক দুজন হলেন টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়নের জাদিমোরা এলাকার রবিউল আলম (২৫) ও উলুচামারি এলাকার মোরশেদ আলম (২৮)।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আবু সালাম চৌধুরী বলেন, সকাল সাড়ে ৯টার দিকে র‍্যাব-১৫-এর টেকনাফ ক্যাম্পে অটোরিকশাচালক ফয়েজি আলম শাহিনের বোন কলিমা আক্তার তাঁর ভাইকে অপহরণ করে নিয়ে যাওয়ার বিষয়ে মৌখিক অভিযোগ করেন। এ সময় তিনি বলেন, তাঁর ভাই বুধবার সকাল ৯টার দিকে অটোরিকশা নিয়ে টেকনাফ থেকে হ্নীলা যাওয়ার পথে হ্নীলার রঙ্গিখালী বৌদ্ধমন্দিরের সামনে চার-পাঁচজন অজ্ঞাতনামা ব্যক্তি নিজেদের র‍্যাব পরিচয় দিয়ে জোরপূর্বক তাঁকে তুলে নিয়ে গেছেন। এরপর তাঁরা তাঁর কাছে পাঁচ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করেন।

ফয়েজি আলমের বোনের কাছ থেকে অভিযোগ পাওয়ার পর র‍্যাব সদস্যরা অভিযান শুরু করেন। ওই দিন রাত সাড়ে ৯টার দিকে হ্নীলার দরগাহ স্টেশন এলাকায় অপহৃত অটোরিকশারচালক ফয়েজি আলমকে উদ্ধার করা হয়। এ সময় র‍্যাব পরিচয়ে ফয়েজি আলমকে অপহরণ করার অভিযোগে রবিউল আলম ও মোরশেদ আলমকে আটক করা হয়। বৃহস্পতিবার দুপুরে তাঁদের টেকনাফ থানা-পুলিশে সোপর্দ করার প্রক্রিয়া চলছে।

টেকনাফ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. হাফিজুর রহমান বলেন, অটোরিকশাচালককে অপহরণের অভিযোগে আটক দুই ব্যক্তিকে দুপুরের পর কক্সবাজার আদালতে পাঠানো হয়েছে।