আগামী নির্বাচন সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ উল্লেখ করে যুবলীগের চেয়ারম্যান বলেন, রাজনীতি করতে হলে জনগণের পাশে যেতে হবে। সাধারণ মানুষের কাছে যেতে হবে। সাংগঠনিক পদ শুধু সাংগঠনিক কাজে ব্যবহার করেন। সাংগঠনিক পদ-পদবি নিজের ব্যক্তিগত পকেটে ভারী করার জন্য নয়। সাংগঠনিক পদ বাজার থেকে কিনে আনা কোনো পণ্য নয়। যুবলীগে পদ পেতে কোনো টাকা লাগে না।

এর আগে জেলা যুবলীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে যোগ দিতে সকাল থেকে জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে যুবলীগের নেতা–কর্মীরা স্টেডিয়ামে আসতে থাকেন। বেলা তিনটায় জাতীয় সংগীতের মধ্য দিয়ে সম্মেলন শুরু হয়।

বাগেরহাট জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক সরদার নাসির উদ্দিনের সভাপতিত্বে সম্মেলনের প্রধান অতিথি ছিলেন বাগেরহাট-১ আসনের সংসদ সদস্য শেখ হেলাল উদ্দিন।

সম্মেলনে আরও বক্তব্য দেন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল; আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বি এম মোজাম্মেল হক; এস এম কামাল হোসেন; বাগেরহাট-২ আসনের সংসদ সদস্য শেখ তন্ময়; বাগেরহাট-৩ আসনের সংসদ সদস্য বেগম হাবিবুন নাহার; বাগেরহাট-৪ আসনের সংসদ সদস্য আমিরুল আলম ওরফে মিলন; যুবলীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও সংসদ সদস্য মজিবুর রহমান চৌধুরী ওরফে নিক্সন প্রমুখ।