আজ শুক্রবার দুপুরে ফেসবুক পোস্টে তিনি লেখেন, ‘এসি ল্যান্ড ভাঙ্গার অফিশিয়াল মোবাইল নম্বর ক্লোন করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার থেকে ক্লোন নম্বর থেকে কল করে এসি ল্যান্ড ও এসি ল্যান্ড অফিসের নাম বলে উপজেলার কয়েকটি ইউনিয়নে ব্যবসায়ীদের কাছে বিকাশে টাকা চাওয়াসহ কিছু ঘটনা ঘটেছে। আমি সবাইকে যাচাই না করে কারও সঙ্গে কোনো লেনদেন না করার অনুরোধ করছি। সেই সঙ্গে এসি ল্যান্ডের নাম বলে কোনো প্রকার অন্যায় আবদার করলে সঙ্গে সঙ্গে জানাবেন প্রত্যাশা করছি।’

এ বিষয়ে ভাঙ্গার এসি ল্যান্ড বা উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মাহামুদুল হাসান বলেন, বৃহস্পতিবার তিনি দাপ্তরিক কাজে ঢাকা ছিলেন। দুপুর ১২টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত তাঁর সরকারি মুঠোফোন নম্বর থেকে তুজারপুরের এক ড্রেজার ব্যবসায়ী, উপজেলার কাউলীবেড়া ও মালিগ্রাম বাজার এলাকার দুটি বেকারিসহ বিভিন্ন ব্যবসায়ীর কাছে টাকা চাওয়া হয়। এ–সংক্রান্ত পাঁচ-ছয়টি অভিযোগ ভাঙ্গার বিভিন্ন এলাকার ব্যবসায়ীরা তাঁকে ও তাঁর দপ্তরের লোকজনকে জানান।

এসি ল্যান্ড বলেন, তাঁর ধারণা, একটি প্রতারক চক্র টাকা চাওয়ার এ কাজটি করছে। তিনি বিষয়টি ভাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে (ওসি) মৌখিকভাবে জানিয়েছেন। জনগণকে জানাতে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন।

ভাঙ্গা থানার ওসি মো. জিয়ারুল ইসলাম বলেন, এসি ল্যান্ড তাঁকে মৌখিকভাবে বিষয়টি জানিয়েছেন। অভিযোগটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন