স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বিদ্যালয় ছুটির পর ছেলে ইউসুফকে নিয়ে বাড়ির দিকে যাচ্ছিলেন তার মা। তাঁরা বটেশ্বর জৈন্তা গেট এলাকায় পৌঁছালে সিলেট-তামাবিল আঞ্চলিক মহাসড়ক পার হতে গিয়ে মায়ের হাত থেকে ছুটে যায় ইউসুফ। এ সময় সিলেটের দিক থেকে আসা জাফলংগামী লেগুনা শিশুটিকে ধাক্কা দেয়। এতে শিশুটি গুরুতর আহত হয়। পরে স্থানীয় লোকজন শিশুটিকে উদ্ধার করে সিলেট সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

স্থানীয় লোকজন শিশুটিকে ধাক্কা দেওয়া লেগুনাটি জব্দ করলেও চালক ও তাঁর সহকারী পালিয়ে গেছেন। খবর পেয়ে তামাবিল হাইওয়ে পুলিশ লেগুনাটি নিজেদের হেফাজতে নিয়েছে। তামাবিল হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল করিম বলেন, নিহত স্কুলছাত্রের লাশ বিকেল সাড়ে পাঁচটা পর্যন্ত সিএমএইচে ছিল। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।