নিজ দলের নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, বিএনপির অপরাজনীতি মোকাবিলা করতে হবে। তারা অপপ্রচার চালিয়ে দেশে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টির চেষ্টা করছে। সাম্প্রদায়িক শক্তির মদদ নিয়ে তারা আবার ক্ষমতায় যেতে চায়। তাদের অপপ্রচারের বিরুদ্ধে সাধারণ মানুষকে বোঝাতে হবে। বিএনপির অপশাসনের কথা মানুষের স্মরণ করাতে হবে।

রাজপথ থেকে বিএনপির অপরাজনীতি প্রতিহত করার আহ্বান জানিয়ে আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, ফখরুল (মির্জা ফখরুল) প্রতিদিন মিথ্যাচার করে যাচ্ছেন। তিনি আরও বলেন, ‘আমরা নাকি দেশ ছেড়ে পালাব। তাঁর উদ্দেশে বলতে চাই, আমরা বীরের জাতি। আওয়ামী লীগের কর্মীরা বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক। তাঁরা লড়াই করতে জানে, পালাতে জানে না। জনগণের আঘাত এলে আমরা রাজপথে থেকে মানুষকে রক্ষা করব।’

সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে খাদ্যমন্ত্রী ও নওগাঁ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেন, ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধের কারণে বিশ্বের ধনী রাষ্ট্র হিসেবে পরিচিত ফ্রান্স, ইংল্যান্ড ও জামার্নির মতো রাষ্ট্র আজ কুপোকাত হয়ে পড়েছে। ইংল্যান্ড সরকার তার দেশের জনগণকে খাওয়ানোর জন্য দুই বেলা রেশনিং চালু করেছে। সেখানে বাংলাদেশের জনগণ তিন বেলা পেট পুরে খেতে পারছে। বিশ্বের অনেক দেশের তুলনায় বাংলাদেশ যথেষ্ট ভালো আছে। তারপরও বিএনপি-জামায়াত অপশক্তি অপপ্রচার চালিয়ে মানুষকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করছে। তাদের এসব অপপ্রচারের বিরুদ্ধে সোচ্চার থাকতে হবে। মানুষকে সঠিক তথ্য জানাতে হবে।

সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন নওগাঁ জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আবুল কালাম আজাদ। সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে নওগাঁ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল মালেক, সংসদ সদস্য নিজাম উদ্দিন, ছলিম উদ্দিন তরফদার, আনোয়ার হোসেন প্রমুখ। দুপুর সাড়ে ১২টায় সম্মেলনের উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি গাজী মেজবাউল হোসেন। সম্মেলনে প্রধান বক্তা ছিলেন আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক এ কে এম আফজালুর রহমান।

নওজোয়ান মাঠে সম্মেলনের প্রথম অধিবেশন শেষে জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের নতুন নেতৃত্ব নির্বাচনের জন্য নওগাঁ সার্কিট হাউসে সম্মেলনে দ্বিতীয় অধিবেশন কাউন্সিল পর্ব শুরু হয়। বিকেলে এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত কাউন্সিল পর্ব চলছিল।