বস্তাগুলোতে ১৭ কোটি ৬২ লাখ টাকা মূল্যমানের ৩২ হাজার পিস ইয়াবা ও ৪৭ লাখ ৬০ হাজার মিটার কারেন্ট জাল পাওয়া যায়।

শুক্রবার সন্ধ্যায় বাংলাদেশ কোস্টগার্ড সদর দপ্তরের গোয়েন্দা পরিদপ্তর শাখার (মিডিয়া কর্মকর্তা) লেফটেন্যান্ট কমান্ডার খন্দকার মুনিফ ওরফে তকি প্রথম আলোকে এ তথ্য জানিয়েছেন।

কোস্টগার্ড সূত্র জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার রাতে সেন্ট মার্টিনের ছেঁড়াদ্বীপসংলগ্ন বঙ্গোপসাগরে অভিযান চালায় কোস্টগার্ডের একটি দল। এ সময় বাংলাদেশ সীমানায় মিয়ানমারের একটি মাছ ধরার নৌকা দেখা যায়।

নৌকাটির গতিবিধি সন্দেহজনক হওয়ায় থামানোর সংকেত দেওয়া হয়। কিন্তু সেটি সংকেত অমান্য করে মিয়ানমার জলসীমানার দিকে দ্রুতগতিতে পালাতে থাকে।

এ সময় কোস্টগার্ড সদস্যরা ধাওয়া করলে কয়েকটি প্লাস্টিকের বস্তা সাগরের পানিতে ফেলে নৌকাটি মিয়ানমার সীমানায় চলে যায়। পরে ভাসমান বস্তাগুলো উদ্ধার করে এর ভেতরে ৩২ হাজার পিস ইয়াবা ও ৪৭ লাখ ৬০ হাজার মিটার কারেন্ট জাল পাওয়া যায়। জব্দ করা জালগুলো আগুনে পুড়িয়ে ফেলা ও ইয়াবাগুলো টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন