এলাকার কয়েকজন বাসিন্দা ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গতকাল রাত ১০টার দিকে মোক্তার মিয়া ও তাঁদের পরিবারের অন্য সদস্যদের মধ্যে পারিবারিক ঋণ নিয়ে কথা-কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে মিলন মিয়া ছোট ভাই মোক্তার মিয়াকে কিলঘুষি মেরে শাসন করেন বলে অভিযোগ ওঠে। এ সময় মোক্তার মাটিতে লুটিয়ে পড়েন এবং কিছুক্ষণের মধ্যেই মারা যান। পরে খবর পেয়ে লেপসিয়া তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মোক্তারের লাশ উদ্ধার করে। এ সময় মিলন মিয়াকে আটক করা হয়।

এ ব্যাপারে আজ রোববার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে লেপসিয়া তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ সিরাজুল ইসলাম বলেন, পারিবারিক বিষয় নিয়ে ঝগড়ায় বড় ভাই মিলন মিয়ার কিলঘুষিতে মোক্তার মারা গেছেন বলে স্থানীয়ভাবে প্রচার হয়েছে। পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মিলনকে আটক করেছে। তবে তাঁর কোনো স্বজন এ বিষয়ে এখনো থানায় কোনো অভিযোগ করেননি।

খালিয়াজুরি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মজিবুর রহমান বলেন, মোক্তারের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। তবে এ নিয়ে নিহত ব্যক্তির স্বজনেরা এখনো থানায় কোনো অভিযোগ করেননি। কেউ অভিযোগ না দিলে আপাতত অপমৃত্যুর মামলা করা হবে। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনের ভিত্তিতে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন