কমিটি বাতিলের দাবিতে গতকাল বেলা ১১টার দিকে ধামরাই থানা রোড এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল বের করেন পদবঞ্চিত নেতা-কর্মীরা। এরপর মিছিলটি ধামরাই বাসস্ট্যান্ড এলাকায় গিয়ে শেষ হয়। সেখানে বেলা সাড়ে ১১টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধ করেন তাঁরা। এ সময় তাঁদের পরনে ছিল কাপনের কাপড়। অবরোধের কারণে মহাসড়কের উভয় পাশে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায় এবং যানজটের সৃষ্টি হয়। পরে ধামরাই থানার পরিদর্শক (অপারেশন) নির্মল কুমার দাশের অনুরোধে অবরোধ তুলে নেন বিক্ষোভকারীরা।

কর্মসূচিতে নেতৃত্ব দেন ধামরাই সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও উপজেলা কমিটির সভাপতি পদপ্রার্থী হাবিবুর রহমান খান এবং উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক রবিউল আউয়াল। এর আগে গত শনিবার দুপুরে একই দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল কর্মসূচি পালন করেন তাঁরা। পরে ধামরাই প্রেসক্লাবে তাঁরা সংবাদ সম্মেলন করেন। সংবাদ সম্মেলনেও ঢাকা জেলা (উত্তর) ছাত্রলীগের সভাপতি সাইদুল ইসলামের বিরুদ্ধে কমিটি গঠন নিয়ে অর্থ–বাণিজ্যের অভিযোগ তোলা হয়।

অবরোধ কর্মসূচি পালনকালে হাবিবুর রহমান বলেন, ১০ লাখ ঢাকার বিনিময়ে অযোগ্যদের দিয়ে উপজেলা ছাত্রলীগের নতুন কমিটি ঘোষণা করেছেন সাইদুল ইসলাম। অবিলম্বে কমিটি বাতিল না করা হলে আরও কঠোর আন্দোলনের ডাক দেওয়া হবে। অভিযোগের বিষয়ে বক্তব্য জানতে সন্ধ্যায় ঢাকা জেলা (উত্তর) ছাত্রলীগের সভাপতি সাইদুল ইসলামের মুঠোফোনে একাধিকবার কল করা হলেও তিনি ধরেননি।