এদিকে ঘটনার ৪৮ ঘণ্টা পেরিয়ে গেলেও মঙ্গলবার রাত ১১টা পর্যন্ত হত্যাকাণ্ডে জড়িত কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। সিলেট মহানগর পুলিশের উপকমিশনার (উত্তর) আজবাহার আলী শেখ বলেন, হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের গ্রেপ্তার করতে পুলিশ অভিযান অব্যাহত রেখেছে। আশা করছেন দ্রুতই আসামিদের গ্রেপ্তার করা সম্ভব হবে।

গত রোববার রাতে সিলেট নগরের বড়বাজার এলাকায় প্রাইভেটকারের ভেতরে ছুরিকাঘাতে খুন হন বিএনপি নেতা আ ফ ম কামাল। তিনি জেলা বিএনপির সর্বশেষ কমিটির স্বাস্থ্যবিষয়ক সম্পাদক ছিলেন।

হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় রোববার রাতে সিলেট নগরে বিক্ষোভ করেন দলীয় ও অঙ্গসংগঠনের নেতা-কর্মীরা। ওই রাতে বিক্ষোভ থেকে সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি সভার জন্য টাঙানো ব্যানার–ফেস্টুন ছেঁড়া ও ভাঙচুরের অভিযোগ করেন আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতা-কর্মীরা। এ নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে পাল্টাপাল্টি ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এদিকে বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হচ্ছে, সরকারি দলের দুর্বৃত্তরা বিএনপি নেতা কামালকে পরিকল্পিতভাবে খুন করেছে।