প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে নেত্রকোনা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খন্দকার শাকের আহমেদ বলেন, আজ সকাল ছয়টার দিকে শাকিল ও তাঁর বড় ভাই সোহাগ আহমেদ মোটরসাইকেলে করে পারলা বাসস্ট্যান্ডে যান। সেখানে সোহাগকে বাসে তুলে দিয়ে শাকিল আবার মোটরসাইকেলে বাড়ি ফিরছিলেন। জেলা শহরের ছোটবাজার এলাকায় আসার পর একটি নৈশকোচকে অতিক্রম করতে গিয়ে বৈদ্যুতের খুঁটির সঙ্গে মোটরসাইকেলে ধাক্কা লাগে। গুরুতর আহত অবস্থায় শাকিলকে উদ্ধার করে নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। নিহত তরুণের স্বজনদের সঙ্গে কথা বলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।