এ সময় আ ফ ম কামাল হত্যার সুষ্ঠু বিচার দাবি করে আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, আ ফ ম কামাল দীর্ঘদিন ধরে বিএনপির একজন সক্রিয় কর্মী হিসেবে কাজ করে গেছেন।

তিনি নির্বিরোধী এক মানুষ ছিলেন। সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের গ্রেপ্তার করে বিচারের আওতায় নিয়ে আসতে হবে। আ ফ ম কামালের হত্যাকাণ্ড নিয়ে কোনো ধরনের টালবাহানা করলে সিলেটের জনগণ নিয়ে এর প্রতিবাদ জানানো হবে।

পরিবারের খোঁজখবর নিয়ে নিহত আ ফ ম কামালের মেয়ের পড়ালেখা ও ভরণপোষণের দায়িত্ব নেওয়ার কথা জানিয়েছেন মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী।

৬ নভেম্বর রাত সাড়ে আটটার দিকে নগরের বড়বাজার এলাকায় প্রাইভেট কারের ভেতরে আ ফ ম কামাল ছুরিকাঘাতে খুন হন। এ ঘটনায় ৮ নভেম্বর রাতে নিহত ব্যক্তি কামালের বড় ভাই ময়নুল হক বাদী হয়ে হত্যা মামলা করেন। মামলায় ছাত্রলীগ কর্মী আজিজুর রহমানকে প্রধান আসামি করে ১০ জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। মামলার পর ওই রাতেই কুটি মিয়া (২৪) নামের একজনকে সুনামগঞ্জ থেকে এবং পরবর্তী সময়ে মিশু আহমদ (২৬) ও মনা মিয়া (২৫) নামের দুজনকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব।