নূর-ই-আলম চৌধুরী আরও বলেন, কথা বলার মতো ক্ষমতা অর্জন করতে হয়। জাতির পিতা স্বাধীনতার আগে এমন কথা বলেছিলেন। তাঁর কাছে সেই ক্ষমতা ছিল। তিনি মানুষকে সেভাবেই তৈরি করেছিলেন। ১০ ডিসেম্বরের পর বিএনপিই ছেলের কথায় চলবে, নাকি মায়ের কথায় চলবে, সেটা দেখার জন্য অপেক্ষা করতে হবে।

জাতীয় পার্টি সম্পর্কে চিফ হুইপ বলেন, জাতীয় পার্টিতে দেবর-ভাবির গন্ডগোল চলছে। আগামীকাল সংসদ বসবে। এক চেয়ার নিয়ে গন্ডগোল শুরু হয়েছে। ওই চেয়ারে আগামীকাল ভাবি বসবেন না, দেবর বসবেন, এমন অবস্থায় গেছে। এত দিন আওয়ামী লীগের সঙ্গে জোটে থেকে একটা জায়গা ছিল, বিরোধী দলে ছিল। এবার এমন অবস্থা শুরু করেছে যে আগামী নির্বাচনে হারিকেন দিয়ে জাতীয় পার্টি খুঁজতে হবে। আওয়ামী লীগের দয়ায় কিছু আসনে সংসদে আসার সুযোগ হয়েছে। আওয়ামী লীগ ছাড়া জাতীয় পার্টির কোন নেতা এমপি হবে?

পরে চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী ঘূর্ণিঝড় সিত্রাংয়ে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তিদের মধ্যে টিন ও নগদ অর্থ বিতরণ করেন এবং কয়েকটি বিদ্যালয়ের নবনির্মিত ভবন উদ্বোধন করেন।

এ সময় মাদারীপুর জেলা প্রশাসক রহিমা খাতুন, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মুনির চৌধুরী, শিবচর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আ. লতিফ মোল্লা, পৌর মেয়র মো. আওলাদ হোসেন খান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রাজিবুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি শাজাহান মোল্লা, সাধারণ সম্পাদক মো. সেলিম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।