আদালত সূত্র জানায়, গতকাল রাতে উপজেলার পাতিবিলা ইউনিয়নের পাতিবিলা উত্তরপাড়া গ্রামের দশম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীর বিয়ের অনুষ্ঠান ছিল। খবর পেয়ে রাত ১১টার দিকে সেখানে অভিযান পরিচালনা করে বাল্যবিবাহ বন্ধ করা হয়। এ সময় আদালত কনের দাদা আবদুস সালামকে (৬৫) ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেন আদালত। আদালত তাঁকে ১০০ টাকা জরিমানা করেন, অনাদায়ে আরও ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ডাদেশ দেন।

এদিকে জগদীশপুর ইউনিয়নের মাড়ুয়া গ্রামে দশম শ্রেণির আরেক শিক্ষার্থীর বিয়ের অনুষ্ঠান চলছিল। রাত সাড়ে ১১টার দিকে ভ্রাম্যমাণ আদালত সেখানে অভিযান চালান। কিন্তু খবর পেয়ে আগেই কনেকে নিয়ে বিয়েবাড়ি ত্যাগ করেন বর ও বরযাত্রীরা। আদালত এ সময় কনের বাবা মো. মহিউদ্দিনকে (৪৬) ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন। আদালত এ সময় তাঁকে ১০০ টাকা জরিমানা করেন, অনাদায়ে আরও ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ডাদেশ দেন।

চৌগাছা উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) গুঞ্জন বিশ্বাস বলেন, দুটি বাল্যবিবাহের খবর পেয়ে অভিযান পরিচালনা করে একটি বিয়ে বন্ধ করা হয়। তবে অন্যটিতে কনেকে নিয়ে বর ও বরযাত্রীরা চলে যান। বাল্যবিবাহ বন্ধে প্রশাসন সব সময় সতর্ক।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন