আসামি জালালুর রহমান সিকদার বুড়িমারী স্থলবন্দরে ফায়ারম্যান কাম ফায়ার হাইড্র্যান্ট অপারেটর হিসেবে কর্মরত।

এ মামলায় গত ১৬ জুন আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, জালালুর রহমানের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলাটি করেছেন সিলেটের তামাবিল স্থলবন্দরের উপপরিচালক মাহফুজুল ইসলাম ভূঁইয়া। মাহফুজুল সিলেট তামাবিল স্থলবন্দরে যোগ দেওয়ার আগে বুড়িমারী স্থলবন্দরে কর্মরত ছিলেন। জালালুর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে মাহফুজুল ইসলাম ভূঁইয়ার নামে মানহানিকর তথ্য-উপাত্ত উপস্থাপন করেছেন বলে অভিযোগে বলা হয়েছে। গত বছরের ৭ অক্টোবর সিলেট সাইবার ট্রাইব্যুনালে মামলাটি করা হয়।

বাদীপক্ষের আইনজীবী কানন আলম বলেন, মাহফুজুল ইসলাম আদালতে মামলার আগে স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষের লিখিত অনুমতি চেয়েছিলেন। গত বছরের ২৮ সেপ্টেম্বর তিনি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলার ব্যাপারে অনুমতি পান। এর পরিপ্রেক্ষিতে তিনি মামলা করেন। মামলার তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয় সিআইডি সিলেটকে। পরে গত ১৬ জুন আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা। এরপর জালালুর রহমানের বিরুদ্ধে পরোয়ানা জারি করা হয়।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন