গ্রেপ্তার হাবীবের বিরুদ্ধে মোট ১২টি গ্রেপ্তারি পরোয়ানা ছিল। এর মধ্যে আটটি মামলায় সাজা হওয়ায় সেগুলোর গ্রেপ্তারি পরোয়ানা ছিল। বাকি চারটি মামলায় তাঁর বিরুদ্ধে আরও চারটি মামলার গ্রেপ্তারি পরোয়ানা রয়েছে। গ্রেপ্তার হাবিবের বাড়ি সোনাইছড়ি ইউনিয়নের শীতলপুর লালবেগ এলাকায়।

সীতাকুণ্ড থানার উপপরিদর্শক হারুনুর রশীদ প্রথম আলোকে বলেন, সীতাকুণ্ড, পাহাড়তলী, ডবলমুরিং, হাটহাজারী এবং ঢাকার শ্যামপুর ও মতিঝিলে হাবীবের বিরুদ্ধে ১২টি মামলা হয়। ১২টি গ্রেপ্তারি পরোয়ানা নিয়ে এই ব্যবসায়ী তিন বছর ধরে পলাতক ছিলেন। গতকাল তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়।