সালমান রাফির বড় চাচা মামুন হাওলাদার প্রথম আলোকে বলেন, তাঁর ছোট ভাই শফিকুল ইসলাম কেওড়া ইউনিয়ন পরিষদের ১ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক সদস্য। তিনি দীর্ঘদিন ধরে ডায়াবেটিস ও উচ্চ রক্তচাপে ভুগছিলেন। আজ দুপুরে তাঁর ভাই অসুস্থ হয়ে পড়েন। রাতে তাঁকে সংজ্ঞাহীন অবস্থায় জেলা সদর হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

মামুন হাওলাদার আরও বলেন, তাঁর ভাতিজা সালমান রাফির আজ এইচএসসির প্রথম দিনের পরীক্ষা ছিল। বাবার লাশ বাড়িতে রেখে তিনি পরীক্ষায় অংশ নেন। দুপুরে পরীক্ষা শেষ করে এসে তিনি বাবার জানাজায় অংশ নেন।