দেবীগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) শহিদুল ইসলাম মুঠোফোনে প্রথম আলোকে বলেন, ‘খবর পেয়ে আমরা ওই কবরস্থানে গিয়ে চারটি কবরের মাটি, বাঁশ ও ঢেকে দেওয়া পলিথিন এলোমেলো অবস্থায় দেখতে পাই। আমরা বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে তদন্ত করছি।’

এর আগে ১৯ অক্টোবর রাতে দেবীগঞ্জ উপজেলার দেবীডুবা ইউনিয়নের ডাঙ্গাপাড়া এলাকায় রিয়াজুল ইসলাম (৫০) নামের এক ব্যক্তির বাড়ি থেকে মাটিতে পুঁতে রাখা পলিথিনে মোড়ানো মাথা, হাড়গোড় বিচ্ছিন্ন অবস্থায় থাকা মানবদেহের চারটি কঙ্কাল উদ্ধার করে গোয়েন্দা পুলিশ। এ সময় গ্রেপ্তার করা হয় দুই নারীকে। এ ঘটনায় দেবীগঞ্জ থানায় একটি মামলা করেছিল ডিবি।