প্রত্যক্ষদর্শী কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, পৌর শহরের পুরাতন বাসস্ট্যান্ড থেকে চুয়াডাঙ্গার উদ্দেশে রওনা দেওয়ার জন্য একটি বাস থেমেছিল। যাত্রী নেওয়ার পর বাসটি চলতে শুরু করলে ওই নারী বাসের চাকার নিচে ঝাঁপিয়ে পড়েন। এতে ঘটনাস্থলেই তাঁর মৃত্যু হয়।

মেহেরপুর জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মতিয়ার রহমান প্রথম আলোকে বলেন, বাসস্ট্যান্ড এলাকায় কয়েক দিন ধরে তিনি ওই নারীকে ঘোরাঘুরি করতে দেখেছেন। আজ সকালে কয়েকবার তিনি বাসের নিচে মাথা দিতে যান। মানসিক ভারসাম্যহীন ভেবে বাসস্ট্যান্ডের লোকজন তাঁকে সরিয়ে দেন। এরপর কাজের ব্যস্ততায় লোকজনের চোখ এড়িয়ে তিনি বাসের নিচে ঝাঁপ দেন। ঘটনাস্থলেই তাঁর মৃত্যু হয়েছে।

মেহেরপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মেজবাহ উদ্দিন প্রথম আলোকে বলেন, অজ্ঞাতনামা ওই নারী মধ্যবয়সী। তিনি মানসিক ভারসামহীন ছিলেন বলে স্থানীয় লোকজনের মাধ্যমে জানতে পেরেছেন। তাঁর পরিচয় শনাক্তের চেষ্টা চলছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন