বুধবার সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ১৩টি কেন্দ্রে টানা ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। তবে কোনো কোনো কেন্দ্রে ইভিএম বিড়ম্বনার জন্য সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ করা হয়। রিটার্নিং কর্মকর্তা ও সিনিয়র জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা শাহিনুর ইসলাম প্রামাণিক রাত সাড়ে ৮টার দিকে ফলাফল ঘোষণা করেন।

ইভিএম অকেজো হওয়া, আঙুলের ছাপ না মেলা এবং ইভিএম নতুন পদ্ধতি হওয়ায় ভোট দিতে দীর্ঘ সময় লেগে যায়। এতে ভোটাররা বিড়ম্বনা ও ভোগান্তিতে পড়েন। বিভিন্ন কেন্দ্রে একই বুথে একাধিকবার ইভিএম পরিবর্তন করে ভোট গ্রহণ করতেও দেখা যায়।

ভোটের দায়িত্বে থাকা ইভিএম টেকনিক্যাল এক্সপার্ট মেহেদী হাসান বলেন, অনেকের আঙুলের ছাপ না মেলার কারণে ভোটার আইডি নম্বর দিতে হয়। তাই একটু সময় বেশি লেগেছে। তবে একাধিক ইভিএম পরিবর্তনের কারণ সম্পর্কে কিছু বলতে পারেননি। তিনি বলেন, ভোট গ্রহণের ক্ষেত্রে কোনো ইভিএমে সমস্যা মনে করা হলে তা পরিবর্তন করে দেওয়া হয়েছে।

ইভিএমে ভোট দিতে বিড়ম্বনার কথা জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী আমজাদ হোসেন। ভোটকেন্দ্রে উপস্থিত সাংবাদিকদের তিনি জানান, ইভিএমে ভোট দেওয়ার পদ্ধতি নতুন হওয়ায় অনেকে ভোট দিতে সমস্যায় পড়েন। ফলে ভোটাররা দীর্ঘ সময় লাইনে দাঁড়িয়ে থাকতে বিরক্ত বোধ করেন।