পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর জন্য বরাদ্দ করা টাকা সঠিকভাবে ব্যবহারের বিষয়ে সম্প্রতি অনুষ্ঠিত এক সভায় এসব নির্দেশনা দেওয়া হয় বলে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়। এতে বলা হয়, ব্যয় সংকোচনের বিষয়ে সরকারের জারি করা পরিপত্র অনুসরণ করে দেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে চলতি অর্থবছরের বাজেট যথাযথভাবে ব্যয় এবং বার্ষিক ক্রয় পরিকল্পনা করার জন্য নির্দেশনা দিয়েছে ইউজিসি। প্রণয়ন করা ক্রয় পরিকল্পনা ৩১ জুলাই নির্ধারিত সফটওয়্যারের মাধ্যমে অনলাইনে আপলোড করতেও নির্দেশনা দেওয়া হয়।

এতে বলা হয়, উন্নয়ন বাজেট ও নিজস্ব তহবিলের আওতায় বাস্তবায়নাধীন সব প্রকার প্রকল্প বা কর্মসূচির ক্ষেত্রে সম্মানী খাতে বরাদ্দ করা টাকা থেকে প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটি (পিআইসি), প্রকল্প স্টিয়ারিং কমিটি (পিএসসি), বিভাগীয় প্রকল্প মূল্যায়ন কমিটি (ডিপিইসি), বিশেষ প্রকল্প মূল্যায়ন কমিটি (এসপিইসি) এবং বিভাগীয় বিশেষ প্রকল্প মূল্যায়ন কমিটি (ডিএসপিইসি) সভায় সম্মানী বাবদ কোনো অর্থ ব্যয় করা যাবে না। আর সভা, সেমিনার, কর্মশালা বা প্রশিক্ষণ যথাসম্ভব ভার্চ্যুয়ালি করার জন্য চেষ্টা করতে হবে।

সভায় ইউজিসির অর্থ ও হিসাব বিভাগের সদস্য মো. আবু তাহের বলেন, ব্যয় সংকোচনের অংশ হিসেবে সরকার ২০২২-২৩ অর্থবছরের বাজেট বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে বেশ কিছু নির্দেশনা দিয়েছে। অর্থ ব্যয়ের ক্ষেত্রে সরকারি এসব নির্দেশনা মেনে চলতে হবে।

সভায় ইউজিসির অর্থ ও হিসাব বিভাগের পরিচালক (অতিরিক্ত দায়িত্ব) মো. শাহ আলম, পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর রেজিস্ট্রার, হিসাব বিভাগের প্রধান ও প্রকৌশল দপ্তরের প্রধানেরা অংশগ্রহণ করেন।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন