২০০৩ সালের ১৮ নভেম্বর পটিয়া সদরের মদিনা ডেকোরেটরের সামনে শাহ আলমকে গুলি করে হত্যা করে সন্ত্রাসীরা।

চট্টগ্রাম জেলা ও দায়রা জজ আদালতের সরকারি কৌঁসুলি শেখ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী প্রথম আলোকে বলেন, তদন্ত শেষে  ২০০৪ সালে মামলায় চূড়ান্ত প্রতিবেদন দেয় পুলিশ। জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত তা গ্রহণ করা হয়। এর বিরুদ্ধে বাদী নিহতের ভাই নারাজি আবেদন করলে তা জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে নামঞ্জুর হয়। পরে তিনি এই আদেশের বিরুদ্ধে জেলা ও দায়রা জজ আদালতে আবেদন করেন। শুনানি শেষে আদালত পুনঃ তদন্তের কার্যক্রম শুরু করার জন্য আইনানুগ পদক্ষেপ নিতে আমলি আদালতকে নির্দেশ দেন।