বিশ্ববিদ্যালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, মেলা চলাকালে ৫০ শতাংশ ছাড়ে ভর্তি হওয়া যাবে। এ ছাড়া এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে টিউশন ফির ওপর যথারীতি ১০০ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় থাকছে। এর মধ্যে এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষায় যাঁদের দুটি মিলে চতুর্থ বিষয় ছাড়া জিপিএ–১০ রয়েছে, তাঁরা টিউশন ফিতে শতভাগ ছাড় পাবেন। বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান এবং গরিব ও মেধাবীদেরও ১০০ শতাংশ পর্যন্ত ছাড়ে পড়ার সুযোগ রয়েছে।

ইইই (রেগুলার ও ইভেনিং), সিএসই (ইভেনিং), ইসলামিক স্টাডিজ (রেগুলার ও সাপ্তাহিক), এমবিএ (রেগুলার ও এক্সিকিউটিভ) এবং এমএ ইন ইংলিশ (রেগুলার ও ইভনিং) বিষয়ে যাঁরা ভর্তি হতে ইচ্ছুক তাঁদের জন্য বিশেষ ছাড় থাকবে। ভর্তি–ইচ্ছুকদের ০১৭০৯১২৬৩৯১, ০১৭০৯১২৬৩৯৪, ০১৮১৯২৪৫৮৯৫ অথবা ০১৭৮০৩৬৪৪১৪-৫ নম্বরে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।

মেলা উদ্বোধনকালে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ হাফিজুল ইসলাম, স্কুল অব বিজনেস অ্যান্ড ইকোনমিকসের ডিন এম হারুন-অর-রশীদ, ইংরেজি বিভাগের প্রধান আহমাদ মাহবুব-উল-আলম, ফার্মেসি বিভাগের প্রধান নারগীস সুলতানা চৌধুরী, ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের প্রধান মো. মাহবুব আলম, সিএসই বিভাগের প্রধান মুহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, আইন বিভাগের প্রধান মোহাম্মদ আজহারুল ইসলাম, ইইই বিভাগের প্রধান কে এম আকতারুজ্জামান, ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের প্রধান মোহাম্মদ ওবায়দুল্লাহ, জার্নালিজম অ্যান্ড মিডিয়া স্টাডিজ বিভাগের প্রধান রফিকুজ্জামান, সেন্টার অব জেনারেল এডুকেশনের কো–অর্ডিনেটর মুহাম্মাদ আবুল কালাম আজাদ, অ্যাডমিশন, পাবলিক রিলেশনস অ্যান্ড স্টুডেন্টস অ্যাফেয়ার্সের অ্যাডিশনাল ডিরেক্টর আবদুল মতিন, ডেপুটি রেজিস্ট্রার আলমগীর হোসেইনসহ বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক, ছাত্রছাত্রী ও কর্মকর্তা-কর্মচারী।