প্রধান অতিথি বলেন, আয়ুর্বেদিক ঔষধের বিপুল চাহিদার কথা মাথায় রেখে বর্তমান সরকার এই খাতকে এগিয়ে নিতে ব্যাপক উদ্যোগ নিয়েছে। এখন প্রয়োজন খাত সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টা। বিকল্প ওষুধ হিসেবে বাংলাদেশের মানুষ আয়ুর্বেদিক খাত থেকে শতভাগ সেবা পেলে, সেটা হবে একটি বৈপ্লবিক কাজ।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বামার নবনির্বাচিত সভাপতি হামদর্দ ল্যাবরেটরিজ (ওয়াক্ফ) বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান মোতাওয়াল্লী হাকীম মো. ইউছুফ হারুন ভূঁইয়া। বিশেষ অতিথি ছিলেন বিপিসির কো-অর্ডিনেটর ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. আব্দুর রহিম খান, সাবেক মন্ত্রী ও সংসদ সদস্য বামার সাবেক সভাপতি এ এফ এম ফখরুল ইসলাম মুন্সি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসি অনুষদের ডিন সীতেশ চন্দ্র বাছার, বাংলাদেশ ঔষধ শিল্প সমিতির মহাসচিব এস এম শফিউজ্জামান, বাংলাদেশ ইউনানী ঔষধ শিল্প সমিতির সভাপতি সাঈদ আহম্মেদ সিদ্দিকী, বাংলাদেশ হোমিওপ্যাথিক মেডিসিন ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট এস এ এম রেজা-উর রহিম।

নবনির্বাচিত কমিটির শপথ পরিচালনা করেন বামার বিদায়ী সভাপতি শিবব্রত রায়। স্বাগত বক্তব্য দেন বামার সাধারণ সম্পাদক মো. মিজানুর রহমান।