ঢাকা উড়ালসড়কে (ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে) স্বাভাবিক যান চলাচল শুরু হবে রোববার সকাল ছয়টা থেকে। ঢাকা, ১ সেপ্টেম্বর
ছবি: দীপু মালাকার

ঢাকা উড়ালসড়কের (ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে) কাওলা থেকে তেজগাঁও অংশ আগামীকাল শনিবার উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তবে উড়ালসড়কে স্বাভাবিক যান চলাচল শুরু হবে রোববার সকাল ছয়টা থেকে। উড়ালসড়কে কোনো যানবাহন থামানো যাবে না। যানবাহন থেকে নেমে ছবি বা সেলফি তোলাও নিষিদ্ধ।

আজ শুক্রবার সেতু বিভাগ থেকে জারি করা এক গণবিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, উড়ালসড়কে দুই ও তিন চাকার যানবাহন চলাচল করতে পারবে না। পথচারী চলাচল সম্পূর্ণ নিষেধ। এর ওপর যেকোনো ধরনের যানবাহন দাঁড়ানো ও যানবাহন থেকে নেমে দাঁড়িয়ে ছবি তোলা সম্পূর্ণ নিষেধ।

মূল উড়ালসড়কে ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ৬০ কিলোমিটার গতিতে যানবাহন চলাচল করতে পারবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে। আর ওঠানামার স্থানে (র‌্যাম্প) সর্বোচ্চ গতিসীমা ঘণ্টায় ৪০ কিলোমিটার। নির্ধারিত টোল পরিশোধ করে যেসব স্থান দিয়ে উড়ালসড়কে ওঠানামা করা যাবে, তা–ও জানিয়েছে সেতু বিভাগ।

উত্তর থেকে দক্ষিণ অভিমুখী যানবাহন হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের দক্ষিণে কাওলা ও প্রগতি সরণি এবং বিমানবন্দর সড়কের আর্মি গলফ ক্লাব থেকে উড়ালসড়কে উঠতে পারবে।

আরও পড়ুন

এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের টোল ৮০ থেকে ৪০০ টাকা

এসব যানবাহন তিনটি স্থানে উড়ালসড়ক থেকে নামতে পারবে। স্থানগুলো হলো বনানী কামাল আতাতুর্ক অ্যাভিনিউ, মহাখালী বাস টার্মিনালের সামনে ও ফার্মগেট প্রান্তে ইন্দিরা রোডের পাশে।

অপর দিকে দক্ষিণ থেকে উত্তর অভিমুখী যানবাহন বিজয় সরণি ওভারপাসের উত্তর ও দক্ষিণ লেন এবং বনানী রেলস্টেশনের সামনে থেকে  উড়ালসড়কে উঠতে পারবে।

আরও পড়ুন

সাভার থেকে যাত্রাবাড়ী যাওয়া যাবে মাত্র এক ঘণ্টায়, তবে...

দক্ষিণ থেকে উত্তর অভিমুখী যানবাহন চারটি জায়গায় নামতে পারবে। জায়গাগুলো হলো মহাখালী বাস টার্মিনালের সামনে, বনানী কামাল আতাতুর্ক অ্যাভিনিউর সামনে বিমানবন্দর সড়ক, কুড়িল বিশ্বরোড এবং বিমানবন্দর তৃতীয় টার্মিনালের সামনে।

আরও পড়ুন

প্রস্তুত ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে