প্রফেশনাল কোর্সের নীতিমালা অনুযায়ী, কোর্স শুরুর সময় একজন শিক্ষক যেই বেতন কাঠামো অনুযায়ী বিশ্ববিদ্যালয়ে নিয়োগপ্রাপ্ত থাকবেন। সেই অনুযায়ী তাকে সম্মানী নিতে হবে। কোর্স চলাকালীন সময় তিনি পদোন্নতি পেলেও প্রফেশনাল কোর্সে সম্মানী বৃদ্ধি হবে না। তবে বিষয়টি সামনে আসার পর গোলাম মোস্তফা অতিরিক্ত সম্মানী ফেরত দিতে চেয়েছেন।

গোলাম মোস্তফা বলেন, ‘২০২০ সালের জুলাই মাস থেকে আমার গ্রেড-১ অনুযায়ী বেতন সুবিধা পাওয়ার কথা। তবে তা এখনো অনুমোদন হয়নি। অনুমোদন হলে প্রফেশনাল কোর্সেও গ্রেড-১ অনুযায়ী সম্মানী সুবিধা পাব। তবে এখনো যেহেতু সিন্ডিকেট অনুমোদন দেয়নি, তাই আমার অতিরিক্ত সম্মানী নেওয়া ঠিক হয়নি। আমি তা সমন্বয় করে দিতে চেয়েছি।’

প্রফেশনাল কোর্সের পরিচালক অধ্যাপক মিজানুর রহমান বলেন, বিষয়টি আমাদের সামনে এসেছে গত মাসে। কাজটিতে তিনি ঠিক করেনি। আমরা তাঁকে বিষয়টি জানানোর পর তিনি নগদ অর্থ ফেরত দিতে চেয়েছেন। কিন্তু নগদ টাকা নেওয়ার না নিয়ম থাকায়, আগামী সেমিস্টারের সম্মানী থেকে সমন্বয় করে কেটে রাখব।

অভিযোগ বিষয়ে প্রফেশনাল কোর্সের সমন্বয়ক কমিটির সদস্য ও বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মহিউদ্দিন বলেন, বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হয়েছে। উনি সমন্বয় করে দিতে চেয়েছেন। কাজটি করা ঠিক হয়নি।