মামলার বাদী মো. পারভেজের আইনজীবী অর্ণব তালুকদার প্রথম আলোকে বলেন, আদালত আসামিকে এক বছরের কারাদণ্ড এবং ১০ লাখ টাকা জরিমানা করেন। রায় ঘোষণার সময় আসামি অনুপস্থিত ছিলেন।

পূর্ব পরিচয়ের সূত্র ধরে মো. পারভেজের কাছ থেকে ১০ লাখ টাকা ধার নেন আলতাফ হোসেন। পরে এই টাকার বিপরীতে ২০১৯ সালের ২৪ সেপ্টেম্বর চেক দেন। কিন্তু চ্যাকটি ব্যাংকে প্রত্যাখ্যাত হয়। পরে বাদী আবার টাকার জন্য যোগাযোগ করেন। কিন্তু আলতাফ হোসেন বিভিন্ন কথা বলে সময়ক্ষেপণ করেন। এই ঘটনায় ওই বছরের ৭ নভেম্বর আদালতে আলতাফ হোসেনের বিরুদ্ধে মামলা করেন মো. পারভেজ।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন