ইহসানুল করিম বলেন, টেড কেনেডি জুনিয়র, তাঁর ছেলে, মেয়ে ও স্ত্রীর সঙ্গে বৈঠককালে শেখ হাসিনা ১৯৭২ সালের ফেব্রুয়ারিতে কেনেডি সিনিয়রের বাংলাদেশ সফরের কথা স্মরণ করেন।

কেনেডি সিনিয়রকে ‘বাংলাদেশের প্রকৃত বন্ধু’ বলে অভিহিত করেন প্রধানমন্ত্রী।

নিক্সন প্রশাসন পাকিস্তানের পক্ষে থাকা সত্ত্বেও মুক্তিযুদ্ধকালে বাংলাদেশের সমর্থনে প্রয়াত মার্কিন সিনেটর এডওয়ার্ড এম কেনেডির অসামান্য অবদানের জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন প্রধানমন্ত্রী।

কানেকটিকাট অঙ্গরাজ্য সিনেটের সাবেক সদস্য টেড কেনেডি জুনিয়র যুক্তরাষ্ট্র-বাংলাদেশ সম্পর্কের ৫০তম বার্ষিকী উদ্‌যাপনে ২৯ অক্টোবর থেকে ৫ নভেম্বর পর্যন্ত সাত দিনের সফরে বাংলাদেশে এসেছেন।