বাংলাদেশকে একটি স্মার্ট দেশে রূপান্তরে চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের সুবিধাগুলো ব্যবহারে সরকারের প্রতিশ্রুতি পুনর্ব্যক্ত করেছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। দুই দিনব্যাপী ‘আইআর স্কিলস সামিট ২০২৩’–এর উদ্বোধনী অধিবেশনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এই কথা বলেন। চলমান এই বৈশ্বিক রূপান্তর থেকে বাংলাদেশের জনগণ যাতে উপকৃত হয় তা নিশ্চিত করতে সরকারের সঙ্গে সহযোগিতা করার জন্য সকলের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (এনএসইউ) মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত উদ্বোধনী অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন উপাচার্য অধ্যাপক আতিকুল ইসলাম। এসপায়ার টু ইনোভেট (এটুআই) এবং থ্রাইভিং স্কিলসের সহযোগিতায় এনএসইউর ক্যারিয়ার অ্যান্ড প্লেসমেন্ট সেন্টার (সিপিসি) এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়।

সভায় হিউম্যান ফিউচারের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যাপক জোনাথন রিচেনটাল, চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের বৈশ্বিক প্রভাবের একটি ভবিষ্যতমূলক পরিকল্পনা উপস্থাপন করেন। ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে একটি স্মার্ট দেশে রূপান্তরে সরকারের বিভিন্ন উদ্যোগের কথা তুলে ধরেন এটুআইর পলিসি অ্যাডভাইজার অনির চৌধুরী।

অধ্যাপক আতিকুল ইসলাম বলেন, শিক্ষার্থীদের চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের উন্নতির জন্য সর্বশেষ প্রবণতা সম্পর্কে জানাতে নিয়মিতভাবে বিভিন্ন কর্মসূচির আয়োজন করছে। বাংলাদেশের জনগণ শিগগিরই সরকারের ও বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন গবেষণা এবং প্রকল্প থেকে সুফল পাবে বলে তিনি আশাবাদী।

এনএসইউর সহউপাচার্য অধ্যাপক এম ইসমাইল হোসেন অনুষ্ঠানে সবাইকে স্বাগত জানান এবং সিপিসির পরিচালক অধ্যাপক মোহাম্মদ খসরু মিয়া ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। এছাড়াও অনুষ্ঠানে থ্রাইভিং স্কিলস্ লিমিটেডের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান সৈয়দ নুরুদ্দিন আহমেদ বক্তব্য দেন।