আগামী জাতীয় নির্বাচন সুষ্ঠু ও অংশগ্রহণমূলক করার লক্ষ্যে নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে ধারাবাহিকভাবে সংলাপ করছে ইসি। আজ এই সংলাপের পঞ্চম দিন।

আজ সিইসি বলেন, রাজনৈতিক দলগুলোর জাতীয় নির্বাচনে অংশগ্রহণের প্রয়োজনীয়তা তাঁরা পুনর্ব্যক্ত করে যাচ্ছেন। আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সব রাজনৈতিক দলকে অংশ নিতে তাঁরা বারবার আহ্বান জানাচ্ছেন।

কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেন, অবাধ, নিরপেক্ষ ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন অনিবার্যভাবে জাতির স্বার্থে প্রয়োজন। সে লক্ষ্যে ইসির প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে।

সিইসি আরও বলেন, নির্বাচনে প্রতিযোগিতা-প্রতিদ্বন্দ্বিতা প্রয়োজন। পক্ষ-প্রতিপক্ষের সক্রিয় অংশগ্রহণে নির্বাচনে একটি ভারসাম্য প্রতিষ্ঠা হয়ে থাকে। এতে সম্ভাব্য অনিয়ম, কারচুপি, দুর্নীতি, অর্থশক্তি-পেশিশক্তির প্রভাব বহুলাংশে নিয়ন্ত্রিত হতে পারে। এটা তাঁরা আন্তরিকভাবে বিশ্বাস করেন।

আজকের সংলাপে বাংলাদেশ জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এম এ মুকিতের নেতৃত্বে ১৩ সদস্যের প্রতিনিধি দল অংশ নেয়। সংলাপে সিইসির সঙ্গে চার নির্বাচন কমিশনার উপস্থিত ছিলেন।

গতকাল বুধবার ছিল বিএনপির সঙ্গে ইসির সংলাপের নির্ধারিত দিন। অবশ্য দলটি আগেই ইসিকে জানিয়েছিল, তারা সংলাপে অংশ নেবে না। তারা বলছে, নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকার ছাড়া অন্য কোনো বিষয়ে তাদের কথা বলার আগ্রহ নেই।

ইসিতে নিবন্ধিত মোট ৩৯টি রাজনৈতিক দলকে ধারাবাহিক এই সংলাপে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। ৩১ জুলাই আওয়ামী লীগের সঙ্গে সংলাপের মধ্য দিয়ে এ কার্যক্রম শেষ হবে।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন