আসামিদের গ্রেপ্তার করা গেল কি না, সে-সংক্রান্ত তামিল প্রতিবেদন আগামী ৫ জানুয়ারি জমা দেওয়ার আদেশ দিয়েছেন আদালত।

আদালত–সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে, দুদকের করা এই মামলার অভিযোগপত্র আজ আমলে নিয়ে আদালত পলাতক তারেক ও জোবায়দার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির আদেশ দিয়েছেন।

আইনজীবী সূত্র বলছে, সম্পদের তথ্য গোপন ও জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে ২০০৭ সালের ২৬ সেপ্টেম্বর তারেক, জোবায়দা ও তাঁর মা সৈয়দা ইকবাল মান্দ বানুর বিরুদ্ধে রাজধানীর কাফরুল থানায় মামলা করে দুদক। পরের বছর তিনজনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়।

দুদকের মামলা বাতিল চেয়ে জোবায়দা রহমান হাইকোর্টে আবেদন করেন। চূড়ান্ত শুনানি শেষে ২০১৭ সালের ১২ এপ্রিল হাইকোর্ট জোবায়দার আবেদন খারিজ করে রায় দেন। মামলায় আট সপ্তাহের মধ্যে জোবায়দাকে বিচারিক আদালতে উপস্থিত হতে নির্দেশ দেওয়া হয়।

হাইকোর্টের এই রায়ের বিরুদ্ধে একই বছর লিভ টু আপিল করেন জোবায়দা। দুদকের মামলা বাতিলে জোবায়দার করা আবেদন (লিভ টু আপিল) গত ১৩ এপ্রিল খারিজ করে দেন আপিল বিভাগ।