কয়েক বছরের মধ্যে চট্টগ্রাম ও ময়মনসিংহে বিএনপির সমাবেশে লোকসমাগম ফ্লপ হয়নি বলে মন্তব্য করেন ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘বিএনপি ঢাকায় ১০ লাখ জমায়েত করলে আওয়ামী লীগ ৩০ লাখ জমায়েত করবে। বিএনপির আন্দোলনে লোক দেখে আমরা ভয় পাই না। তারা যত লোকের টার্গেট দেয়, তত লোক কি হয়? অনেকে বলেছে, ৩০ হাজার, ৩৫ হাজার কিংবা ৫০ হাজার লোক হয়েছে। আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেছি। আমি বলেছি, চট্টগ্রামে লাখের কাছে লোক হয়েছে। সত্যকে আড়াল করে তো লাভ নেই। সত্যকে আড়াল করব কেন? এটা আওয়ামী লীগের বহু লোক স্বীকার করতে চায় না। কেউ বলে, ২৫ হাজার, ৩০ হাজার।’

ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, ‘বিএনপি যেভাবে লোকসমাগম করছে, গত কয়েক বছরে করেছে, সেই হিসাবে এইটা ফ্লপ হয়ে গেছে, এটা আমার মনে হয় সঠিক নয়। আমরা শুধু তাঁদের বলি, শান্তি পূর্ণ করেন। ঢাকায় আপনি ১০ লাখ বসান, আপনারা ১০ লাখ বসালে আমরা ৩০ লাখ বসিয়ে দেব। এই যানজটের কথা বললেন, এই যে তাঁরা রাস্তা বন্ধ করে সমাবেশ করেন, তাঁদের তো একবারও বললেন না যে আপনারা রাস্তা বন্ধ করে সমাবেশ করছেন কেন।’

বিএনপির আন্দোলনের গতি দেখে সরকারের মাথা খারাপ হয়ে গেছে, বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন বক্তব্যের জবাব দেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক। তিনি এ বিষয়ে বলেন, ‘বিএনপি আসলে ১২-১৩ বছর ধরে তাদের দলের নেত্রী, যিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদারতায় মুক্ত আছেন, কিন্তু এই মুক্ত অবস্থাটা বিএনপি ক্রিয়েট করতে পারেনি। তারা চোখে পড়ার মতো একটা দৃশ্যমান আন্দোলন, একটা বিক্ষোভ খালেদা জিয়ার জন্য করতে পারেনি। তাদের মুখে এটা শোভা পায় না।’

দেশের সংকটে কষ্টে থাকা মানুষেরা বিএনপির সমাবেশে যোগ দিচ্ছে জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘তাদের দলের নেতা-কর্মী তাদের মাথায় ঢুকিয়েছে ক্ষমতায় এসেই যাচ্ছে, ক্ষমতায় এসেই যাচ্ছে। কিছু লোক যে অভাব-কষ্টে আছে, সে ধরনের কিছু লোকও তাদের সভা-সমাবেশে আসছে। মানুষ কিন্তু যেভাবে আন্দোলনে ঝাঁপিয়ে পড়ে, যেটা ’৬৯-এ হয়েছে। সেটা বিএনপি করতে পারেনি।’

বিএনপি নেতারা মাথা খারাপ করে পেট্রলবোমা ছুড়বে, এমন ভয়ে আছেন বলে জানান আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক। তিনি বলেন, ‘সরকারের মাথা ঠিক আছে। আমরা বিএনপিকে বলব, আপনারা মাথাটা খারাপ করিয়েন না। মাথা খারাপ করে আবার পেট্রলবোমা নিয়ে নামবেন, আমরা এই ভয়ে আছি।’

বিএনপির নেতাদের উদ্দেশে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘মাথা খারাপ করে আবার জাতীয় পতাকায় লাঠিসোঁটা নিয়ে নামবেন, আমরা তো সেই ভয়ে আছি। আমরা তো ভয় করি সেইটা যে আপনারা আন্দোলন করতে গিয়ে সহিংসতার উপাদান যুক্ত করেন। সেটা নিয়ে আপনাদের ভাবনা আছে, এটা তো দেশের নিরাপত্তা জনগণের জানমালের নিরাপত্তার ব্যাপার আছে।’