২০২০ সালের ১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী এবং ‘মুজিব বর্ষ’ শুরু হয়। এ উপলক্ষে জাতীয় উদ্‌যাপন কমিটির উদ্যোগে জমকালো অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। করোনা মহামারির কারণে অনেক অনুষ্ঠান ডিজিটাল চ্যানেলগুলোর মাধ্যমে পরিচালিত হয়। এই উদ্‌যাপন অনুষ্ঠানে মানুষের সার্বিক অংশগ্রহণ ছিল স্বতঃস্ফূর্ত। বিশ্বের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দেশের সরকার ও রাষ্ট্রপ্রধানেরা শুভেচ্ছা বার্তা পাঠান। এতে আয়োজনটি একটি বৈশ্বিক অনুষ্ঠানে পরিণত হয়।

নতুন প্রজন্মসহ দেশবাসীকে অনুপ্রাণিত করতে ওই সময় বঙ্গবন্ধুর ওপর ডিজিটাল ভিডিও ও ছবিসংবলিত প্রামাণ্যচিত্র বানানো হয়। এর পাশাপাশি বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে বিশ্বমানের স্মারকগ্রন্থ, সংকলনগ্রন্থ, স্যুভেনির প্রকাশ করা হয়। এ ছাড়া ‘মুক্তির মহানায়ক’ শীর্ষক উদ্বোধনী অনুষ্ঠান এবং ‘মুজিব চিরন্তন’ নামের ১০ দিনব্যাপী একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

দুই দিনব্যাপী ‘মহাবিজয়ের মহানায়ক’ শীর্ষক একটি অনুষ্ঠান এবং ‘টুঙ্গিপাড়া: হৃদয়ে পিতৃভূমি’ শীর্ষক সমাপনী অনুষ্ঠানেরও আয়োজন করা হয়। গত ৩১ মার্চ আনুষ্ঠানিকভাবে সমাপ্ত হয় মুজিব বর্ষ। মঙ্গলবার জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির মিডিয়া সেন্টারের প্রতিবেদনও প্রধানমন্ত্রীর কাছে পেশ করা হয়।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন