১৫ বিশিষ্টজনের বিবৃতিতে উঠে এসেছে লেখক ও সাংবাদিক আনিসুল হককে নিয়ে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার প্রশ্নপত্রে উদ্দীপকের বিষয়টিও। এটি ‘কুরুচিপূর্ণ ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত’ বলে উল্লেখ করেছেন তাঁরা।  

বিবৃতিতে উচ্চমাধ্যমিকের প্রশ্নপত্রের আরেকটি উদ্দীপক নিয়েও সমালোচনা করা হয়েছে। বিশিষ্টজনেরা বলেন, ‘আরও একটি প্রশ্নপত্র সরাসরি সাম্প্রদায়িক উসকানিমূলক। আমরা ভেবে অবাক হই যে কীভাবে মুক্তিযুদ্ধের বাংলাদেশে শিক্ষা বোর্ডের প্রশ্নপত্রে এ ধরনের প্রশ্ন করা হয়।’

বিবৃতিদাতারা বলেন, ‘আমরা শিক্ষার এই অধোগামিতা দেখে হতাশ ও ক্ষুব্ধ।এ ধরনের কুরুচিপূর্ণ ও সাম্প্রদায়িক অপচেতনা আমাদের শিক্ষাব্যবস্থার অসারতা প্রমাণ করে। এসব অপকর্মের দ্রুত তদন্ত ও শাস্তিমূলক ব্যবস্থার দাবি করছি।’

১৫ বিশিষ্টজনের ভাষ্যমতে, বিবৃতিতে উল্লেখ করা বিষয়গুলো বাংলাদেশের সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও শিক্ষার ক্ষেত্রে বিরাজমান অব্যবস্থাপনার চিত্র। এখনই এই ধস রোধ করতে হবে। তাই সরকারকে দ্রুত পদক্ষেপ নিতে হবে।

বিবৃতিদাতাদের মধ্যে রয়েছেন হাসান ইমাম, অনুপম সেন, সারওয়ার আলী, রামেন্দু মজুমদার, সেলিনা হোসেন, আবেদ খান, মফিদুল হক, শফি আহমেদ, মুনতাসীর মামুন, শাহরিয়ার কবীর, নাসিরউদ্দীন ইউসুফ, মুহাম্মদ সামাদ, গোলাম কুদ্দুছ, কাজী মুকুল প্রমুখ।