মামলায় গত ১৬ আগস্ট হাইকোর্টের একটি দ্বৈত বেঞ্চ মার্জিয়াকে ছয় মাসের অন্তর্বর্তীকালীন জামিন দিয়েছিলেন।

হাইকোর্টের দেওয়া এই জামিন স্থগিত চেয়ে রাষ্ট্রপক্ষ আপিল বিভাগে আবেদন করে। আবেদনটির শুনানি নিয়ে গত ২১ আগস্ট চেম্বার আদালত হাইকোর্টের দেওয়া জামিন স্থগিত করেন। একই সঙ্গে আদালত আবেদনটি ২৯ আগস্ট আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে শুনানির জন্য পাঠান। এর ধারাবাহিকতায় আজ বিষয়টি ওঠে।

আজ আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল এম সাইফুল আলম শুনানি করেন। মার্জিয়ার পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী জহুরুল ইসলাম।

পরে আইনজীবী জহুরুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, ‘মার্জিয়ার জামিনের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষের করা আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন আপিল বিভাগ। ফলে তাঁর জামিন মঞ্জুর করে হাইকোর্টের দেওয়া আদেশ বহাল থাকছে। এতে করে মার্জিয়ার কারামুক্তিতে আইনগত বাধা নেই।’

হেনস্তার শিকার তরুণী ঢাকার একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। তিনি গত ১৭ মে এক বন্ধুকে নিয়ে ঢাকা থেকে নরসিংদীতে গিয়েছিলেন। ফেরার পথে পরদিন ভোরে নরসিংদী রেলস্টেশনে ট্রেনের জন্য অপেক্ষায় ছিলেন তিনি। এ সময় জিনস ও টপস পরায় গালিগালাজ-মারধরের শিকার হন তরুণী।

তাঁর সঙ্গে থাকা দুই বন্ধুও মারধরের শিকার হন। এক ব্যক্তি পুরো দৃশ্য ভিডিও করেন। এই ভিডিও ফেসবুকে পোস্ট করলে তা ছড়িয়ে পড়ে। পোশাকের জন্য তরুণীকে হেনস্তার ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন অনেকে।

এ ঘটনায় পর নরসিংদী রেলওয়ে পুলিশ বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ভৈরব রেলওয়ে থানায় মামলা করে। মামলায় গত ৩০ মে মার্জিয়াকে গ্রেপ্তার করা হয়। তিনি নিম্ন আদালতে জামিন চেয়ে বিফল হন। পরে হাইকোর্টে জামিন চেয়ে আবেদন করেন।