১১টি সমন্বিত দলে কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তর, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তর, পরিবেশ অধিদপ্তর, গণপূর্ত অধিদপ্তর, স্থাপত্য অধিদপ্তর, তিতাস গ্যাস, বিস্ফোরক পরিদপ্তর, প্রধান বিদ্যুৎ পরিদর্শকের দপ্তর, এফবিসিসিআই, ডেসকো, প্রধান বয়লার পরিদর্শকের কার্যালয়, রাজউক, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের সদস্যরা কাজ করবেন। এই পরিদর্শন কার্যক্রম ৮২টি প্রশ্নের নতুন চেকলিস্টের মাধ্যমে করা হবে।

এর আগে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের নির্দেশনায় বিডার নেতৃত্বে ১০৮টি দলের মাধ্যমে সারা দেশের ৫ হাজার ২০৬টি কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন করা হয়।

প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে ডাইফ মহাপরিদর্শক মো. নাসির উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘পরিদর্শকেরা আন্তরিকভাবে পরিদর্শন করবেন, যেন পরিদর্শন প্রতিবেদনে বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান ও মার্কেটগুলোর সঠিক চিত্র প্রতিফলিত হয়।

ত্রুটিবিচ্যুতি সংশোধন করার জন্য প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষকে যথাযথ নির্দেশনা দিতে হবে। পরিদর্শন প্রতিবেদনের ভিত্তিতে পরবর্তী কার্যক্রম গ্রহণ করা হবে।’

পরিদর্শনকালে সর্বোচ্চ সহযোগিতার মনোভাব বজায় রেখে পরিদর্শন সম্পন্ন করার জন্য সমন্বিত পরিদর্শন ও পর্যবেক্ষণ দলের সদস্যদের প্রতি আহ্বান জানান ডাইফ মহাপরিদর্শক।

প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বিডার নির্বাহী সদস্য (অতিরিক্ত সচিব) অভিজিৎ চৌধুরী, ডাইফের অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক (যুগ্ম সচিব) মিনা মাসুদ উজ্জামান, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরের সাবেক মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) আবু নাইম মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ প্রমুখ।

বাণিজ্য থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন