যুক্তরাজ্যের কেন্দ্রীয় ব্যাংক জানিয়েছে, মন্দার আশঙ্কায় যুক্তরাজ্যের ব্যাংকগুলো থেকে সব ধরনের ঋণ নেওয়ার পরিমাণ কমেছে। পাশাপাশি গত সেপ্টেম্বর মাসে নাগরিকদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে টাকা রাখার পরিমাণ দ্বিগুণের বেশি বেড়েছে।

গত আগস্ট মাসে ব্যাংকগুলোতে ব্যক্তিগত সঞ্চয়ের পরিমাণ ছিল ৩২০ কোটি ডলার। তবে সেপ্টেম্বর মাসে এই পরিমাণ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮১০ কোটি ডলারে।

এদিকে, আগস্ট মাসে ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে নতুন বন্ধকী ঋণের সংখ্যা ছিল ৭৪ হাজার ৪২২টি। সেপ্টেম্বরে সেই সংখ্যা নেমে এসেছে ৬৬ হাজার ৭৮৯টিতে। উচ্চ মূল্যস্ফীতি ও গৃহঋণের ক্রমবর্ধমান চাপ সামাল দিতে না পারা শঙ্কা থেকে এমনাট হচ্ছে বলে জানিয়েছে ব্যাংক অব ইংল্যান্ড।

আর্থিক গবেষণা সংস্থা ক্যাপিটাল ইকোনমিক্সের গবেষক অ্যাশলে ওয়েব বলেছেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে বাড়ির দাম প্রায় ১২ শতাংশ কমে যাবে।

ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে ভোক্তাদের কেনাকাটা বা অন্যান্য খরচের পরিমাণও ৫০ কোটি ডলার কমেছে। অ্যাশলে ওয়েব বলেন, দেশের অর্থনৈতিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় লোকেরা আরও সতর্ক হয়ে উঠছে। এর ফলে তারা কম খরচ করে সঞ্চয় বেশি করছেন।