ব্যাংকগুলো এখন সর্বোচ্চ ১০৮ টাকা দরে প্রবাসী আয় আনছে। আর রপ্তানি আয় নগদায়নে ডলারের দর ধরা হচ্ছে ১০০ টাকা। ফলে আমদানিতে ডলারের দাম পড়ছে ১০৫-১০৬ টাকা।

কৃষিঋণে নজর বাড়ানোর তাগিদ

চলমান বৈশ্বিক পরিস্থিতিতে দেশের খাদ্যনিরাপত্তা নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর আব্দুর রউফ তালুকদার। গতকাল বেসরকারি ব্যাংকগুলোর ব্যবস্থাপনা পরিচালকদের সঙ্গে এক সভায় তিনি এই নির্দেশনা দেন। বাংলাদেশ ব্যাংকের জাহাঙ্গীর আলম সম্মেলন কক্ষে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়। এক বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

জানা যায়, সরকারি ব্যাংকগুলো কৃষিঋণে আগ্রহী হলেও বেসরকারি অনেক ব্যাংক অনীহা দেখাচ্ছে। অনেক ব্যাংক নিজেরা ঋণ না দিয়ে এনজিওদের মাধ্যমে ঋণ দিচ্ছে, এতে সুদহার অনেক বেড়ে যাচ্ছে, যদিও কৃষিঋণে সুদহার ৮ শতাংশ। অন্যদিকে বিভিন্ন তহবিলের ঋণের সুদহার ৪ শতাংশ। এমন পরিস্থিতিতে বেসরকারি ব্যাংকগুলোর সঙ্গে আলোচনায় বসেন গভর্নরসহ কেন্দ্রীয় ব্যাংকের শীর্ষ কর্মকর্তারা।

সভায় অ্যাসোসিয়েশন অব ব্যাংকার্স বাংলাদেশের চেয়ারম্যান সেলিম আর এফ হোসেনসহ অন্য এমডিরা কৃষি খাতে ঋণ বিতরণের লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের আশ্বাস দেন। একই সঙ্গে কৃষকদের কম সময়ে মৌসুমভিত্তিক ঋণ প্রদানের বিষয়েও তাঁরা গভর্নরকে আশ্বস্ত করেন। গভর্নর কৃষি খাতে ঋণপ্রবাহ নিশ্চিত করতে এমডিদের উদ্যোগী হওয়ার আহ্বান জানান।