ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো বলছে, লিভারপুলের শেয়ার কিনতে ইতিমধ্যে এফএসজির সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন মুকেশ আম্বানি। রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজের চেয়ারম্যান আম্বানিকে একজন ক্রীড়া অনুরাগী হিসেবেও মনে করা হয়। তিনি ভারতীয় প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) দল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের মালিক। এ ছাড়া ভারতীয় সুপার লিগ চালুসহ দেশটির ফুটবলের উন্নয়নেও কাজ করছেন তিনি।

তাই এখন দেখার বিষয়, লিভারপুল কেনার মাধ্যমে খেলাধুলা জগতের আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে তিনি পা রাখতে পারবেন কি না। তবে সে জন্য তাঁকে মধ্যপ্রাচ্য ও যুক্তরাষ্ট্রের অন্য ধনকুবেরদের সঙ্গে প্রতিযোগিতায় নামতে হবে।

অবশ্য এর আগেও লিভারপুল কেনার আগ্রহ দেখিয়েছিলেন আম্বানি। ২০১০ সালে ভারতের আরেক প্রতিষ্ঠান সাহারা গ্রুপের চেয়ারম্যান সুব্রত রায়ের সঙ্গে মিলে আম্বানি লিভারপুলের ৫১ শতাংশ শেয়ার কেনার আগ্রহ দেখিয়েছেন বলে খবর বের হয়। তবে লিভারপুলের তৎকালীন প্রধান নির্বাহী ক্রিস্টেন পার্সলো ওই দাবি অস্বীকার করেন।

এদিকে লিভারপুল সমর্থক গোষ্ঠী বলে পরিচিত গ্রুপ ‘স্পিরিট অব শ্যাঙ্কলি’ ক্লাব বিক্রির খবরের ব্যাখ্যা চেয়েছে ক্লাব কর্তৃপক্ষের কাছে। একই সঙ্গে গ্রুপটি বলেছে, ক্লাবটির শেয়ার বিক্রির বিষয়ে কর্তৃপক্ষ যেন তাদের সঙ্গে পরামর্শ করে সিদ্ধান্ত নেয়।