default-image

নতুন স্বাভাবিক জীবনে কর্মীদের মতো আইটিও আছে। অবিচলিত, নিরাপদ এবং বিরামহীনভাবে কাজ করা নিশ্চিত করতে ব্যবসাগুলোকে নতুনভাবে চিন্তাভাবনা করতে হবে। উত্তরটি রয়েছে আরডিই (RDE)-তে।

দক্ষিণ–পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশ আইটির রূপান্তরের ব্যাপক ঢেউ প্রত্যক্ষ করেছে। প্রধানত মোবাইল ও ইন্টারনেট ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ার কারণে বাংলাদেশ একধরনের ডিজিটাল বিপ্লবের শিখরে রয়েছে। ২০২০ সালের শুধু প্রথম সাত মাসে, পুরো বিশ্ব যখন অভূতপূর্ব একটি অতিমারির বিরুদ্ধে লড়াই শুরু করেছিল, সেই সময়ে বাংলাদেশের ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা ৯৯ মিলিয়ন থেকে বেড়ে ১০৮ মিলিয়ন হয়েছিল এবং এর সঙ্গে মোবাইল ইন্টারনেটের ব্যবহারকারীর সংখ্যা ছিল ১৬৬ মিলিয়ন। অতিমারির কারণে হওয়া মন্দা থেকে বর্তমানে দ্রুতগতিতে বেরিয়ে আসা বাজারগুলোর মধ্যে বাংলাদেশ অন্যতম। প্রতিবেদন অনুসারে, গত বছরের তুলনায় এই অঞ্চলে ই-কমার্স ৮০ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে, আর পরবর্তী দুই বছরে এর সম্ভাব্য বৃদ্ধি হবে ৩ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। এই রকমের চাহিদা-চালিত এবং বাধ্যকারী বাজারে প্রতিষ্ঠা লাভের জন্য ব্যবসাগুলোকে উদ্ভাবনী হতে হবে।

বিজ্ঞাপন

আরডিইকে বুঝতে পারা

নতুন স্বাভাবিকভাবে চ্যালেঞ্জগুলো বহুগুণে বৃদ্ধি পেয়েছে। অধিকাংশ ব্যবসাই নানা জায়গায় ছড়িয়ে থেকে কাজ করতে বাধ্য হয়েছিল। ডব্লিউএফএইচ আকস্মিকভাবে বাস্তব হয়ে ওঠায় কর্মীরা রাতারাতি ছড়িয়ে গেছেন, ফলে নেটওয়ার্ক বিস্তৃত করা, সহযোগিতা করা এবং নিরাপত্তা অত্যন্ত দ্রুতগতিতে বৃদ্ধি করার জন্য আইটির ওপর চাপ তৈরি হয়েছে। বিশ্বে ব্যবসায়ের স্থিতিস্থাপকতা যেখানে মুখ্য, সেখানে বুদ্ধিমত্তার সঙ্গে আইটির বিতরণ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। অন্যভাবে বলতে হলে কর্মীরা, কাজের জায়গাগুলো, আইটির ব্যবস্থা, সরঞ্জাম ও অ্যাপস এমনকি ক্লাউডের পরিকাঠামো পর্যন্ত—সবকিছুই একাধিক স্থানে বণ্টিত হয়ে আছে। স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসার জন্য ব্যবসার ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকার জটিলতার সমাধান করতে হবে এবং একটি রেজিলিয়েন্ট ডিস্ট্রিবিউটেড এন্টারপ্রাইজ (আরডিই) হতে হবে।

সিআইওর চ্যালেঞ্জগুলোর উপশম করা

ব্যবসায়িক পরিভাষায়, একটি নিরাপদ ও মিশ্র কাজের মডেল সৃষ্টি করে আরডিই দলগুলোকে যেকোনো জায়গা থেকে কাজ এবং সহযোগিতা করার ক্ষমতা প্রদান করে। একাধিক ক্লাউড আর্কিটেকচারব্যাপী সক্ষম করা অ্যাপ্লিকেশন এবং পরিষেবা নিয়োগ করে এবং একটি দূরবর্তী আইটি পরিকাঠামোর দ্বারা এটি সক্ষম করা হয়।

একজন সিআইওর জন্য এর অর্থ হলো ইচ্ছানুযায়ী আইটির কর্মক্ষমতা পরিবর্তনের নমনীয়তা অর্জন করা। যখন প্রয়োজন হবে তখন আইটি ব্যবস্থা নতুন কর্মক্ষমতাগুলোকে চালু বা বন্ধ করতে পারবে। আর্থিক ও ব্যবস্থাপনার দৃষ্টিভঙ্গি থেকে একটি আরডিই মডেল অবলম্বন করার অর্থ হলো একটি সংহত প্রযুক্তির পরিকাঠামো, যেখানে কার্যপদ্ধতিগুলো নমনীয়, নীতিগুলো বলিষ্ঠ, আইটির কাজ নিরবচ্ছিন্ন এবং সুরক্ষার বিষয়ে কোনো সমঝোতা না করে সবই একটি ছাতার তলায় থাকে। একটি নিরবচ্ছিন্ন অথচ বণ্টিত পরিবেশে একজন সিআইওর তিন ধাপ মন্ত্র হলো নিরাপদ ও দূরবর্তী কাজকে সক্ষম করা, নিরাপদে কাজে ফিরে আসা (অল্পসংখ্যক কর্মীদের জন্য যাঁদের দপ্তরে থেকে কাজ করতে হবে) এবং নমনীয় ক্লাউড নিয়োগ করা।

এই সময়ে সিআইওদের এই বিষয়টিতে সতর্ক থাকতে হবে যে নেটওয়ার্কের এমনকি সামান্যতম গোলযোগের ফলেও উৎপাদনশীলতায় এবং ব্যবহারকারীদের অভিজ্ঞতায় বিপর্যয়কারী ফল হতে পারে। এ ছাড়া নিরাপত্তার ত্রুটির কারণে ঘটা বিপদগুলোর উপশম করা দরকার। মোট কথা হলো বর্তমানে একটি আরডিই হওয়া ছাড়া অন্য কোনো বিকল্প নেই। তবে এর জন্য বিশেষজ্ঞের প্রযুক্তিগত হস্তক্ষেপ প্রয়োজন।

সিসকোর সঙ্গে আপনার আইটিকে পুনরায় পরিকল্পনা করুন

সুরক্ষা, নেটওয়ার্ক ও পরিকাঠামোর ব্যবস্থাপনা, নিরাপত্তা, ক্লাউড ও সহযোগিতার ক্ষেত্রে বিশ্বব্যাপী অভিজ্ঞতা এবং গ্রাহকের সাফল্যে সমৃদ্ধ সিসকো ব্যবসাগুলোকে তাদের বিস্তৃত পোর্টফোলিওর সাহায্যে শক্তি অর্জন এবং তাদের আইটিকে পুনরায় পরিকল্পনা করার উদ্দেশ্যে প্রয়োজন অনুসারে সমাধান দেয়। প্রযুক্তি, নীতি এবং অপারেশনগুলোকে একসঙ্গে করে সিসকোর সমাধানের পোর্টফোলিও ব্যবসাগুলোকে ‘কর্মক্ষেত্রে প্রত্যাবর্তন’ সংক্রান্ত সুরক্ষার সমাধান, ‘যেকোনো স্থান থেকে কাজ করার’ নেটওয়ার্ক এবং সহযোগিতার সরঞ্জাম, নমনীয় একাধিক ক্লাউড ব্যবস্থাপনা এবং সুরক্ষিত প্রান্তিক সমাধানগুলো প্রদানের মাধ্যমে ব্যবসা পুনরায় চালু করতে সহায়তা করে।

বহুমাত্রিক সুরক্ষা

সিকিওরএক্স নামে একটি নতুন সমাধান হলো সিসকোর আরডিই অশ্বশক্তির কেন্দ্র। এই সমাধানটি রিয়েল টাইম অটোমেশন, ডেটা বিশ্লেষণ, নীতিগত আশ্বাস প্রদানের পাশাপাশি কর্মীদের দূরবর্তী স্থান থেকে তাঁদের কাজের ব্যবস্থাপনাতে সহায়তা করে—এই সবকিছুই একটি একীভূত সমাধানে একত্র থাকে। এই বণ্টিত পরিবেশে যেখানে কর্মীরা, নেটওয়ার্ক এবং প্রান্তগুলো সবই ছড়িয়ে থাকার অবস্থায় রয়েছে, সেই অবস্থায় ডেটা সৃষ্টি থেকে প্রক্রিয়াকরণ ও উদ্ধার করা পর্যন্ত প্রতি পদে সুরক্ষাকে ত্রুটিহীন করে নিচ্ছিদ্র হতে হবে।

বিজ্ঞাপন

মিশ্র ক্লাউড গ্রহণ

একটি আরডিইর আরেকটি মূল সক্ষমকারী হলো সফলভাবে মিশ্র ক্লাউডের নিয়োগকরণ। সিসকোর মিশ্র ক্লাউড পোর্টফোলিও ব্যবসাগুলোকে অ্যাপ ও সরঞ্জামগুলোকে সরকারি, বেসরকারি এবং অন-প্রেমাইস ডেটা কেন্দ্রগুলো থেকে নিরবচ্ছিন্নভাবে সামনে ও পেছনে স্থানান্তর করতে দেয়। সামনে কী অপেক্ষা করে রয়েছে, সে বিষয়ে যেহেতু ব্যবসাগুলো নিশ্চিত নয়, সেই জন্য আগামী মাসগুলোতে প্রক্রিয়াগুলোকে রিয়েল টাইমে বাড়ানো অথবা কমানোর প্রয়োজন হবে। নমনীয় মিশ্র ক্লাউড একে সক্ষম করে এবং ব্যয়কে যুক্তিসংগত করার জন্য আপনার বৃদ্ধির সঙ্গে অর্থ প্রদানের সাশ্রয়ী মডেলের উপস্থাপনা করছে।

নিরবচ্ছিন্ন সহযোগিতা

একটি আরডিইর শেষ পর্যায়ের সক্ষমকরণটি সহযোগিতার মাধ্যমে আসে। বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে থাকা যে কর্মীরা বাড়ি থেকে কাজ করছেন, তাঁদের দপ্তরের পরিবেশের অনুরূপ ভার্চ্যুয়াল কাজের পরিবেশ দেওয়া প্রয়োজন। ডব্লিউএফএইচ পদ্ধতিতে কর্মীরা বিভিন্ন ধরনের সরঞ্জাম ব্যবহার করেন—যেগুলো প্রায়ই পার্সোনাল কম্পিউটার, সেগুলোর সংযুক্তির রীতিনীতি ও মান বিভিন্ন প্রকারের হয়। একই ধরনের একটি কাজের পরিবেশ নিশ্চিত করার জন্য সহযোগী সরঞ্জামগুলোকে একই সঙ্গে শক্তিশালী, নমনীয় ও ব্যবহারকারীবান্ধব হতে হবে। ভৌগোলিক অবস্থান এবং সময়-মান মণ্ডল নির্বিশেষে সব আকারের ব্যবসাগুলোর জন্য সিসকো ওয়েবএক্স গ্রাহকদের একটি নির্দিষ্ট মানের সহায়তার পরিকাঠামো নিশ্চিত করে। ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা কর্মী, অ্যাপ্লিকেশন এবং ক্লাউডের ৩-স্তরীয় আইটি টোপোলজির ব্যবস্থাপনা করে আপনার ব্যবসার জন্য একটি আরডিই তত্ত্বই হলো অতিমারি-পরবর্তী সুসময়কালীন বৃদ্ধিতে পদার্পণের মূল চাবিকাঠি।

করপোরেট সংবাদ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন