বাংলাদেশের ৫০ বছর পূর্তিতে কোকা-কোলার বিশেষ অনুষ্ঠান

বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে কোকা-কোলা একটি বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। #Happy50Bangladesh শিরোনামে এ অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের ৫০ বছর পূর্তিতে সারা বিশ্বের মানুষ উইশ করছে। ভিডিও বার্তার মাধ্যমে স্বাধীনতার ৫০ বছরের এ আনন্দ সারা বিশ্বের মানুষের কাছে ছড়িয়ে দেওয়ার প্রয়াস নিয়েছে কোকা-কোলা। ফেসবুকে শেয়ার করে সারা বিশ্বের মানুষ দেখতে পারছে এ উইশ।

আফ্রিকা থেকে এশিয়া, ইউরোপ থেকে ওশেনিয়া, আমেরিকা থেকে এশিয়া—সব দেশ থেকেই বাংলাদেশের ৫০ বছর পূর্তি এ আয়োজনে ভিডিও বার্তা ও লেখার মাধ্যমে উইশ করছে সে দেশের জনগণ।

ইতালি থেকে মারিয়া রোসিন বাংলাদেশের ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেছেন, ‘আমি বাংলাদেশকে এবং সেখানের মানুষকে ভালোবাসি। আমি শুনেছি, বাংলাদেশের ৫০ বছর পূর্তি উদ্‌যাপিত হচ্ছে। আমি শুভেচ্ছা জানাচ্ছি।’ এ ছাড়া তুর্কি থেকে ফাহাদ ওলো ফেসবুকের ভিডিও বার্তায় বাংলাদেশকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

কোকা-কোলা স্বাধীনতার আগে থেকে এ অঞ্চলে ব্যবসা করছে। স্বাধীনতার পর থেকে কোকা-কোলার ব্যবসা আরও সম্প্রসারিতভাবে শুরু করে প্রতিষ্ঠানটি। বাংলাদেশ সরকার স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে বিভিন্ন অনুষ্ঠান পালন করছে। এ ছাড়া বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানও নানা কর্মসূচি পালন করছে।

বাংলাদেশের ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে কোকা-কোলা, বাংলাদেশের অন্যতম বৃহৎ শপিং মল বসুন্ধরা সিটি কমপ্লেক্সে ছয়টি প্রমাণ আকৃতির কোকের বোতলের প্রতিরূপ স্থাপন করে। এই উদ্বোধনে প্রধান অতিথি ছিলেন মুক্তিযুদ্ধের সময় স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের বিশিষ্ট শিল্পী মনোরঞ্জন ঘোষাল এবং কোকা-কোলা বাংলাদেশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ বিশিষ্ট ব্যক্তিরা।

বিজ্ঞাপন

এ ছাড়া বাংলাদেশের ৫০তম স্বাধীনতার স্মরণে কোকা-কোলা তাদের ৫০০ মিলি বোতলের নকশা এবং লেবেলে একটি অনন্য স্বাধীনতা থিম নিয়ে আসছে। বিশেষ এই বোতলের নকশা ও লেবেলে কোকা-কোলার লোগো বাংলাদেশ থিমে হবে এবং মার্চ মাস থেকেই বোতলগুলো বাজারে আসবে, যা ডিসেম্বর মাস পর্যন্ত চলবে।

কোকা-কোলা, সারা বিশ্বের মানুষের কাছে জনপ্রিয় এক পানীয়ের নাম। ১৮৮৬ সালে ফার্মাসিস্ট জন পেম্বার্টন প্রথম কোকা-কোলা আবিষ্কার করেন। ১৩০ বছর ধরে কোকা–কোলা বিশ্বের মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে আছে। ২০১৫ সালে কোকা-কোলা বিশ্বের তৃতীয় সেরা মূল্যবান ব্র্যান্ডের স্বীকৃতি পায়। ২০১৩ সালের তথ্য অনুসারে, গোটা পৃথিবীর ২০০টির বেশি দেশে কোকা-কোলা বিক্রি করা হয়। প্রতি সেকেন্ডে গড়ে প্রায় ৮ হাজার গ্লাস কোকা-কোলা পান করা হয়ে থাকে। বিজ্ঞপ্তি

করপোরেট সংবাদ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন