default-image

দীর্ঘদিন ধরেই দেশে বাইকের চাহিদা বেড়ে চলেছে। বিশেষ করে বড় শহরে বাইকে চলাচলের মাধ্যমে অল্প সময়ে ও অল্প খরচে যাতায়াত করা যায়। কিন্তু আমাদের দেশে বাইকারদের জন্য সঠিক প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা অপ্রতুল। সঠিক প্রশিক্ষণই দেয় নিরাপদে পথচলার আত্মবিশ্বাস। সেই প্রশিক্ষণের লক্ষ্যে এবং বাইকারদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার প্রয়াস নিয়ে এসিআই মোটরস ইয়ামাহা রাইডিং একাডেমির মাধ্যমে প্রথমবারের মতো বাংলাদেশে শুরু করেছে মোটরসাইকেল চালানোর বিশেষ প্রশিক্ষণ কর্মসূচি।
২০১৭ সাল থেকে যাত্রা শুরু হয় এই রাইডিং একাডেমির। এখন পর্যন্ত ২৪০টির বেশি ক্লাস হয়েছে রাইডিং একাডেমিতে। এখানে প্রতি ক্লাসে ৩০ জন করে শিক্ষার্থীকে মোটরবাইক চালানোর প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়ে থাকে। শুরুর দিকে এ একাডেমির অন্যতম লক্ষ্য ছিল নারীদের মোটরসাইকেল চালানোর প্রশিক্ষণের সুযোগ করে দেওয়া। কারণ, দেশে নারীদের মোটরসাইকেল চালানো শেখার পর্যাপ্ত সুব্যবস্থা অনেক কম। রাইডিং একাডেমিতে এখন পর্যন্ত দুই হাজার জনের বেশি বাইকারকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে, যার মধ্যে ১ হাজার ২০০ জনের বেশি ছিলেন নারী। নারী ও পুরুষ উভয়ের জন্যই প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা রয়েছে এখানে।

বিজ্ঞাপন
default-image

রাজধানীর তেজগাঁওয়ের বিজি প্রেস মাঠে প্রতি শুক্র ও শনিবার দুটি করে ক্লাস নেওয়া হয় রাইডিং একাডেমিতে। বাইকের ব্যবহারিক ক্লাসের বাইরেও তাত্ত্বিক ক্লাসের মাধ্যমে সেফটি গাইডলাইন শেখানো হয়। প্রশিক্ষণের সময় সবাইকে বাইকের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দিকের ব্যাপারে ধারণা দেওয়া হয়।

নারীদের জন্য নারী প্রশিক্ষক রয়েছেন। ইয়ামাহা রাইডিং একাডেমির প্রশিক্ষকেরা ইয়ামাহা জাপানের প্রশিক্ষকদের দ্বারা প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত। বর্তমানে ঢাকা ও ফরিদপুরে চালু রয়েছে এ কার্যক্রম। বাংলাদেশের ইয়ামাহা রাইডিং একাডেমির অন্যতম লক্ষ্য এখানকার বাইকারদের ড্রাইভিং লাইসেন্স পাওয়ায় সহযোগিতা করা।

default-image

ইয়ামাহা মোটরসাইকেল বাংলাদেশ-এসিআই মোটরস লিমিটেডের ফেসবুক পেজ থেকে ফর্মের লিংক অথবা এই পেজের মেসেজের মাধ্যমে ফর্মের লিংক নিয়ে ফর্মটি পূরণ করে রেজিস্ট্রেশন ফি দিয়ে অতি সহজেই এই প্রশিক্ষণের জন্য রেজিস্ট্রেশন করা যায়।

প্রশিক্ষণ কর্মসূচি সম্পর্কে এসিআই মোটরসের নির্বাহী পরিচালক সুব্রত রঞ্জন দাস বলেন, ‘ইয়ামাহার সঙ্গে ব্যবসা শুরু করার পর থেকেই আমরা মানুষকে মোটরসাইকেল চালানোর প্রশিক্ষণ দিয়ে আসছি। এখন পর্যন্ত দুই হাজার বাইকারকে আমরা ফ্রি প্রশিক্ষণ দিয়েছি। ঢাকার বাইরে ফরিদপুরেও ইয়ামাহা রাইডিং একাডেমি প্রশিক্ষণ দেওয়ার কাজ করছে। আশা করছি, আমরা সারা দেশেই এই প্রশিক্ষণ দেওয়ার কাজ করতে পারব।’

বিজ্ঞাপন
করপোরেট সংবাদ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন