default-image

স্বল্পোন্নত দেশ (এলডিসি) থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণ হওয়ার আগেই রপ্তানি পণ্যে বৈচিত্র্য আনার তাগিদ দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। তিনি বলেন, উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণ বাংলাদেশের জন্য গৌরবের ব্যাপার। তবে উন্নয়নশীল দেশ হওয়ার আগে উৎপাদন ও প্রতিযোগিতা সক্ষমতা বাড়াতে বেসরকারি খাতকে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের পরামর্শ দেন তিনি। গতকাল শনিবার এক অনলাইন কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে অর্থমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

‘স্বল্পোন্নত দেশ থেকে টেকসই উত্তরণে বেসরকারি খাতের সঙ্গে কার্যকর অংশীদারত্ব’ শীর্ষক ওই কর্মশালায় বক্তব্য দেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, অর্থ বিভাগের জ্যেষ্ঠ সচিব আবদুর রউফ তালুকদার, ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম প্রমুখ। কর্মশালায় সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এসডিজিবিষয়ক মুখ্য সমন্বয়ক জুয়েনা আজিজ।

অর্থমন্ত্রী বলেন, সাম্প্রতিক বছরগুলোতে পৃথিবীতে যত অর্থনৈতিক সংকট এসেছে, বাংলাদেশ দৃঢ়ভাবে সেগুলো মোকাবিলা করেছে। তবে উন্নয়নশীল দেশে যাওয়ার আগে বেসরকারি খাতের গবেষণা ও উন্নয়ন সক্ষমতা বাড়াতে গুরুত্ব দিতে হবে। অর্থমন্ত্রী আরও বলেন, ‘আমরা ইতিমধ্যে চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের যুগে প্রবেশ করেছি। আইসিটি, ব্লক চেইন, আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স—চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের এসব সম্ভাবনা কাজে লাগাতে হবে। তা না হলে বাংলাদেশ প্রতিযোগিতায় পিছিয়ে পড়বে। বেসরকারি খাতকে এগিয়ে আসতে হবে।’

বিজ্ঞাপন


বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেন, এলডিসি উত্তরণ-পরবর্তী সময়ে আন্তর্জাতিক সহায়তা কমে যাবে। তাই বাংলাদেশকে এখন থেকেই প্রস্তুত হতে হবে। উত্তরণ-পরবর্তী সময়ের জন্য প্রস্তুতির লক্ষ্যে বাংলাদেশকে এখন থেকেই বিভিন্ন দেশের সঙ্গে মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি সইয়ের জন্য আলোচনা শুরু করতে হবে।

অন্যদিকে এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম স্বল্পোন্নত দেশ হতে উত্তরণের জন্য প্রণীত ক্রান্তিকালীন কৌশল প্রণয়নের ক্ষেত্রে বেসরকারি খাতের সক্রিয় অংশগ্রহণ প্রত্যাশা করেন।

উত্তরণ-পরবর্তী সময়ের সঙ্গে খাপ খাওয়াতে মানুষের কর্মদক্ষতা বাড়ানো এবং শিক্ষাব্যবস্থা ঢেলে সাজানোর প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন অর্থ বিভাগের সিনিয়র সচিব আবদুর রউফ তালুকদার।

বাংলাদেশ ২০১৮ সালে স্বল্পোন্নত দেশ হতে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণের মানদণ্ড পূরণ করেছে। জাতিসংঘের নিয়মানুযায়ী, কোনো দেশ পরপর দুটি ত্রিবার্ষিক পর্যালোচনায় উত্তরণের মানদণ্ড পূরণে সক্ষম হলে উত্তরণের সুপারিশ লাভ করে। ২০২৬ সালে বাংলাদেশের এলডিসি থেকে উত্তরণের কথা।

অর্থনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন